সেই ভারতকেই চালকের আসন দিলেন ইশান্ত শর্মা

ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

সেই ভারতকেই চালকের আসন দিলেন ইশান্ত শর্মা

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৯

সেই ভারতকেই চালকের আসন দিলেন ইশান্ত শর্মা

টেস্ট ক্রিকেট এমনই। ক্ষণে ক্ষণেই ম্যাচের রঙ বদলায়। অ্যান্টিগা টেস্টও ক্ষণে ক্ষণে বদলাচ্ছে রঙ। প্রথম দিন শেষে যে ভারতকে মনে করা হচ্ছিল ব্যাক-ফুটে, দ্বিতীয় দিন শেষে সেই ভারতই চালকের আসনে।

ব্যাকফুট থেকে ভারতকে চালকের আসনে বসিয়ে দেওয়ার নায়ক ইশান্ত শর্মা। অভিজ্ঞ এই পেসারের অগ্নিঝরা বোলিং ভারতকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে বড় লিডের। বৃষ্টিভেজা প্রথম দিনে ৬ উইকেট হারিয়ে সফরকারী ভারত তুলেছিল ২০৩ রান। শেষ ৪ উইকেটে কাল আরও ৯৪ রান যোগ করে ভারত প্রথম ইনিংসে অলআউট হয়েছে ২৯৭ রানে।

জবাবে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইশান্ত শর্মার তোপের মুখে ১৮৯ রানেই হারিয়ে ফেলেছে ৮ উইকেট। ক্যারিবীয়রা এখনো ১০৮ রানে পিছিয়ে। তাদের হাতে আছে মাত্র ২টি উইকেট।

প্রথম দিনে ভারতকে কাঁপিয়ে দেওয়ার নায়ক ছিলেন কেমার রোচ-গ্যাব্রিয়েল শ্যাননরা। কাল তাদেরকেও ছাপিয়ে যান ইশান্ত। অ্যান্টিগার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে আগুনের স্ফূলিঙ্গই ঝরিয়েছেন ৯১তম টেস্ট খেলতে নামা ৩১ ছুঁইছুঁই ইশান্ত। ক্যারিবীয় ব্যাটিং লাইনআপের মেরুদণ্ড ভেঙে দিতে নিয়েছেন ৫ উইকেট। এ নিয়ে ক্যারিয়ারে ৯ম বারের মতো ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়ার কীর্তি দেখালেন তিনি।

দিন শেষে তার বোলিং বিশ্লেষণ ১৩-২-৪২-৫। কে জানে, ক্যারিবীয়দের শেষ দুটি উইকেট তুলে নিতে পারলে ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ের কীর্তিটাও গড়ে ফেলতে পারেন তিনি! সেটি না পারলেও ইশান্ত যা করেছেন, তাতেই অধিনায়ক বিরাট কোহলি খুশিতে গদগদ হওয়ার কথা।

কোহলি হয়তো পিঠ চাপড়ে দিচ্ছেন অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজাকেও। ২০৩ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলার পরও যে ভারত শেষ পর্যন্ত ২৯৭ রান করতে পেরেছে, তার কৃতিত্ব রবীন্দ্র জাদেজার। প্রথম দিন শেষে ৩ রানে অপরাজিত থাকা জাদেজা কাল যোগ করেছেন আরও ৫৫ রান।

মানে কাল যে ৯৪ রান যোগ করেছে ভারত, তার ৫৫ রানই জাদেজার ব্যাটে। বল হাতে নায়ক হওয়ার আগে ইশান্ত শর্মা ব্যাট হাতেও নিজের কার্যকারিতা দেখিয়েছেন। দলকে টেনে তুলতে রবীন্দ্র জাদেজার সঙ্গে অষ্টম উইকেটে গড়েন ৬০ রানের জুটি। যাতে তার অবদান ১৯ রান। ইশান্ত আউট হওয়ার পরও মোহাম্মেদ সামি ও জাসপ্রিত বুমরাহকে নিয়ে জাদেজা দলের পুঁজি বড় করার চেষ্টা করেছেন। শেষ পর্যন্ত সেই চেষ্টায় ইতি টেনেছেন নিজেই ১০ম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হয়ে।

৬ উইকেটে ২০৩ থেকে ২৯৭। বেশ স্বস্তি নিয়েই ফিল্ডিংয়ে নামে ভারত। তাদের সেই স্বস্তি দ্রুতই বৃষ্টি করে দেন ইশান্ত, সামি, বুমরাহ, জাদেজারা। প্রথমে এই ৪ জনে মিলেই আঘাত হানেন ক্যারিবীয় ইনিংসে। ক্যারিবীয়দের প্রথম ৪ ব্যাটসম্যানকে আউট করেন তারা ৪ জনে। পরের গল্পটুকু শুধুই ইশান্তের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পরের ৪টি উইকেটই তুলে নেন ইশান্ত।

ইশান্তের তোপে ওয়েস্ট ইন্ডিসের কোনো ব্যাটসম্যানই হাফসেঞ্চুরি ছুঁতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৪৮ রান করেছেন রোস্টন চেস। এ ছাড়া শিমরন হেটমেয়ার ৩৫, শাই হোপ ২৪, জন ক্যাম্পবেল ২৩, ড্যারেন ব্রাভো ১৮, ক্রেইগ ব্রাফেট ১৪ ও শামার্স ব্রুকস ১১ রান করেছেন।

কেআর

 

ক্রিকেট: আরও পড়ুন

আরও