নতুন পথ চলার প্রত্যয় তামিমের

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

নতুন পথ চলার প্রত্যয় তামিমের

পরিবর্তন ডেস্ক ৮:৪৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৩, ২০১৯

নতুন পথ চলার প্রত্যয় তামিমের

তামিম ইকবাল

পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে এবার শ্রীলঙ্কা যেতে পারেনি বাংলাদেশ। চোট সমস্যার কারণে শেষ মুহূর্তে সরে দাঁড়াতে হয়েছে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে। একই কারণে দলে নেই তরুণ তুর্কি মোহাম্মদ সাইফউদ্দীনও।

এদিকে সাকিব আল হাসান আছেন ব্যক্তিগত ছুটিতে। শ্রীলঙ্কা সফর চলাকালীন বিয়ের তারিখ ঠিক হয়েছে লিটন দাসের। তিনিও তাই ছুটিতে। দলে থাকলেও কাঁধের সমস্যায় ভুগছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সব মিলিয়ে ভাঙাচোরা একটি দলকেই নেতৃত্ব দেবেন তামিম ইকবাল। ওয়ানডেতে এর আগে কখনো দলকে নেতৃত্ব দেননি বাঁ-হাতি এই ওপেনার।

শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশ গিয়েছে ৩ ম্যাচের একটি ওয়ানডে সিরিজ খেলতে। যার প্রথমটি অনুষ্ঠিত হবে শুক্রবার। সোমবার সিরিজ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়েছেন তামিম। সেখানে জানালেন, বিশ্বকাপের ব্যর্থতা ভুলে এই সিরিজের মধ্য দিয়ে নতুন পথ চলা শুরু করতে চায় বাংলাদেশ।

পয়েন্ট টেবিলের আটে থেকে বিশ্বকাপ শেষ করেছে বাংলাদেশ। ৯ ম্যাচে মাত্র ৩ জয় তাদের। ফলটা মোটেও আশানুরূপ হয়নি। সেই ব্যর্থতা পেছনে রেখে তাই নতুন শুরুর অপেক্ষায় টাইগাররা।

সংবাদ সম্মেলনে বিশ্বকাপের প্রসঙ্গে তামিম বলেছেন, ‘আমরা আরো কিছু ম্যাচে হয়তো জিততে পারতাম। আট নম্বরে থেকে শেষ করেছি। আমরা ক্রিকেটাররাও অনুধাবন করেছি, এর চেয়ে ভালো কিছু করতে পারতাম।’

একই সাথে অতীতের ব্যর্থতা ভুলে নতুন শুরুর কথাও জানালেন দলের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক, ‘এখানে আমাদের শুধু ভালো ক্রিকেট খেলাটাই যথেষ্ট হবে না। ম্যাচ জিততে হলে এর চেয়েও ভালো কিছু করতে হবে। এই সিরিজ থেকে আমরা সামনে তাকাতে চাই।’

শ্রীলঙ্কা সফরে সবচেয়ে বড় ইস্যু হিসেবে দেখা দিয়েছে নিরাপত্তা। এপ্রিলে ইস্টার সানডেতে আত্মঘাতী বোমা হামলার পর দেশটির নিরাপত্তা নিয়ে দেখা দিয়েছে শঙ্কা। কিন্তু বাংলাদেশ দলের জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে শ্রীলঙ্কা। আর তাতে সন্তুষ্ট বাংলাদেশ দলও।

তামিমের কথায়, ‘শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডকে ধন্যবাদ তারা যেভাবে আমাদের দেখাশোনা করছে। নিরাপত্তা অসাধারণ। যে সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে খুবই ভালো।’

একটা সময় বাংলাদেশও প্রায় একই সমস্যা পড়েছিল। ২০০৯ সালে বিডিআর বিদ্রোহ কিংবা ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতায় সংশয় দেখা গিয়েছিল বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনের। সেসময় শ্রীলঙ্কা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশের প্রতি।

সেই কথা স্মরণ করে তামিম বলেছেন, ‘খুব বেশি দিন আগের কথা নয় আমরাও এমন পরিস্থিতিতে পড়েছিলাম। তখন শ্রীলঙ্কাও আমাদের সহায়তা করেছিল। আমরা সবাই পরিবারের মতো। এ ধরনের ঘটনার পর একে অপরের সহায়তা করা খুব দরকার।’

পিএ

 

ক্রিকেট: আরও পড়ুন

আরও