আজই সেই অনন্য ‘প্রথম’ সাকিবের?

ঢাকা, ১৪ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

আজই সেই অনন্য ‘প্রথম’ সাকিবের?

পরিবর্তন ডেস্ক ২:০১ অপরাহ্ণ, জুন ২০, ২০১৯

আজই সেই অনন্য ‘প্রথম’ সাকিবের?

ক্রিকেট রেকর্ডের খেলা। আর সেই রেকর্ডগুলোর মধ্যে যেকোনো ‘প্রথম’-এর কীর্তির মর্যাদা আবার অন্য রকম। এমন কিছু ‘প্রথম’ আছে, যা চাইলেও কেউ কখনো কেড়ে নিতে পারবে না। যেমন ডেনিস অ্যামিসের বিশ্বকাপের ইতিহাসে ‘প্রথম সেঞ্চুরি’র কীর্তিতে কেউ কখনো ভাগ বসাতে পারবেন না। ছুঁতে পারবেন পারবেন না মহিন্দর অমর নাথের বিশ্বকাপে ‘প্রথম’ উইকেট নেওয়ার কীর্তিও। ঠিক তেমনই এক ‘প্রথম’ ডাকছে সাকিব আল হাসানকে। ইতিহাসের প্রথম অলরাউন্ডার হিসেবে বিশ্বকাপে ১০০০ রান ও ৩০ উইকেট নেওয়ার মাইলফলক।

হ্যাঁ, অনন্য এই ‘প্রথম’ই ডাকছে সাকিবকে। বুঝতেই পারছেন, এই কীর্তি ইতিহাসে কারো নেই। স্যার ভিভ রিচার্ডস, ইয়ান বোথাম, কপিল দেব, ইমরান খান, রিচার্ড হ্যাডলি, সনাত জয়সুয়িা, স্টিভ ওয়াহ, জ্যাক ক্যালিস, শহীদি আফ্রিদি-ইতিহাসে অনেক কিংবদন্তি অলরাউন্ডারের দেখাই পেয়েছে বিশ্ব ক্রিকেট।

এদের সবাই বিশ্বকাপও মাতিয়েছেন। কিন্তু কেউই বিশ্বকাপে ১০০০ ও ৩০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁতে পারেননি। বিশ্বকাপে ৯০০ রান ও ২৫ উইকেটের মাইলফলকই ছুঁতে পেরেছেন মাত্র ৩ জন। তার একজন সাকিব। অন্য দুইজন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ ও শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক সনাত জয়সুরিয়া।

তিনটি বিশ্বকাপে মোট ৩৩ ম্যাচ খেলে ৯৭৮ রান ও ২৭ উইকেট নিয়েছেন স্টিভ ওয়াহ। ৫টি বিশ্বকাপে ৩৮ ম্যাচ খেলে ১১৬৫ রান ও ২৭ উইকেট জয়সুরিয়ার। সেখানে ৪টি বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত মোট ২৫ ম্যাচ খেলেই সাকিব করেছেন ৯২৪ রান। সঙ্গে উইকেট নিয়েছেন ২৮টি। মানে আর ৭৬টি রান ও ২টি উইকেট হলেই সাকিব ছুঁয়ে ফেলবেন ওই অনন্য ‘প্রথম।’

স্টিভ ওয়াহ ও জয়সুরিয়া অনেক আগেই সাবেক-এর খাতায় নাম লিখিয়েছেন। ফলে একমাত্র সাকিবের সামনেই ইতিহাসের প্রথম অলরাউন্ডার হিসেবে এই ‘প্রথম’-এর হাতছানী। সাকিব পারবেন আজই অনন্য এই ‘প্রথম’-এর কীর্তিটা গড়তে?

আজ না হলেও এই বিশ্বকাপেই যে সাকিব কীর্তিটা গড়ে ফেলবেন, সেটি বলাই যায়। আজ অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ম্যাচটিসহ এবারের বিশ্বকাপে আরও অন্তত ৪টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবেন সাকিব। ব্যাট ও বল হাতে যে ফর্মে রয়েছেন, তাতে বলাই যায়, এবারের ইংল্যান্ড বিশ্বকাপেই কীর্তিটা গড়তে যাচ্ছেন তিনি।

এবারের বিশ্বকাপে এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক সাকিব। ৪ ম্যাচেই করেছেন ১২৮ গড়ে ৩৮৪ রান। সঙ্গে উইকেটও নিয়েছেন ৫টি। সেই সাকিব বাকি ৪ ম্যাচে ৭৬ রান ও ২ উইকেট নিতে পারবেন না? একটু ঝুঁকি নিয়ে বলে দেওয়াই যায় পারবেন! এমনকি যে অবিশ্বাস্য ফর্মে আছেন, তাতে সাকিব কীর্তিটা গড়ে ফেলতে পারেন আজই।

এবারের বিশ্বকাপে ব্যাট করতে নামা ৪ ম্যাচেই পঞ্চাশোর্ধ ইনিংস খেলেছেন সাকিব। যার দুটিকে রূপ দিয়েছেন সেঞ্চুরিতে। তার ইনিংস ৪টি এমন, ৭৫, ৬৪, ১২১ ও ১২৪*। এই ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে সাকিব আজই করে ফেলতে পারেন প্রয়োজনীয় ৭৬। সঙ্গে ৪ ম্যাচের দুটিতে ২টি করে উইকেটও নিয়েছেন। সুতরাং এবারের বিশ্বকাপের ধারাবাহিকতাটা বজায় থাকলে আজই সাকিবের পায়ে এসে লুটোপুটি খাওয়ার কথা কীর্তিটা।

স্বপ্নময় পারফরম্যান্সে এরই মধ্যে বিশ্ব ক্রিকেটাঙ্গনে আলোচনা উঠে গেছে, সাকিবই সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডার কিনা। এমনকি ভারতের পত্রপত্রিকায়ও এ নিয়ে বড় বড় প্রতিবেদন ছাপা হচ্ছে। অনন্য এই কীর্তি গড়তে পারলে সাকিবকে নিয়ে ‘সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডারের’ আলোচনাটা নিশ্চিতভাবেই আরও জোরালো হবে।

কেআর

 

ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯: আরও পড়ুন

আরও