কেমন থাকবে পাক-ভারত রণের আবহাওয়া?

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

কেমন থাকবে পাক-ভারত রণের আবহাওয়া?

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:০৮ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০১৯

কেমন থাকবে পাক-ভারত রণের আবহাওয়া?

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা। বিশ্বকাপ ক্রিকেটে হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ভারত ও পাকিস্তান।

বাংলাদেশ সময় রোববার বিকেল সাড়ে ৩টায় ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দু’দলের এই ম্যাচে থাকবে বিশ্বের কোটি চোখ।

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে খেলার ঘটন-অঘটনের চেয়ে এবার সবচেয়ে বেশি আলোচনা বৃষ্টি নিয়ে। অন্তত অর্ধডজন ম্যাচ বৃষ্টির কারণে মাঠেই গড়ায়নি।

এ নিয়ে গোটা বিশ্বের ক্রিকেট ভক্তরা নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি’র কড়া সমালোচনা করেছে। তারা রিজার্ভ ডে কেন রাখা হয়নি, তা নিয়ে প্রশ্নও তুলেছেন।

যদিও সমালোচনা গায়ে না মেখে আইসিসি বলছে, এই আসরে রিজার্ভ ডে রাখা হতো রীতিমতো ‘যৌক্তিক দুঃস্বপ্ন’।

আইসিসি’র প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসনের ভাষ্যে, প্রত্যেকটি ম্যাচের রিজার্ভ ডে রাখলে আসর আরও দীর্ঘ হতো, যা বাস্তব অর্থেই অসম্ভব।

অবশ্য তিনিও স্বীকার করেন, ইংল্যান্ডের আবহাওয়া অত্যন্ত বিরক্তিকর আচরণ করছে।

রিচার্ডসন আরও বলেন, ‘জুন যুক্তরাজ্যের তৃতীয় শুষ্ক মাস। অথচ আমরা বিগত কয়েক দিনের অভিজ্ঞতায় দেখেছি, জুনেই সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হচ্ছে।’

২০১৮ সালের জুনে মাত্র ২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু, বিগত মাত্র ২৪ ঘণ্টায় শুধু দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যান্ডেই ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

ফলে সবচেয়ে আকর্ষণীয় এই ম্যাচ ঘিরেও আবহাওয়া আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে।

ম্যানচেস্টারের আবহাওয়া বলছে, সারা দিনই বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টি হবে।

ম্যানচেস্টারে শনিবারও দিনভর বৃষ্টি ঝরেছে। তবে সন্ধ্যা থেকে আর হয়নি। এতে করে কিউরেটররা মাঠের ক্ষতিগ্রস্ত অংশ মেরামতের সুযোগ পেয়েছেন।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রোববার দিনভরই বৃষ্টি হবে। তবে সকালের বৃষ্টি স্থানীয় সময় সকাল ৭টায় থেমে যাবে।

ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচের গুরুত্ব বিবেচনায় আজ একটু আগেভাগেই টস হতে পারে বলে খবর দিয়েছে এনডিটিভি।

দিনের মেঘাচ্ছন্ন কেটে শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার পর থেকে ম্যানচেস্টারের আকাশ পরিচ্ছন্ন রয়েছে।

ফলে আউটফিল্ড সায় দিলে এবং পিচ দ্রুত শুকানো সম্ভব হলে ছোট পরিসরে হলেও ক্রিকেটপ্রেমীরা পাক-ভারতের একটি ম্যাচ দেখতে পারবেন।

কিন্তু, আউটফিল্ড ভেজা থাকলে যেমন খেলা হতে দেরি হবে, তেমনি টসে বিলম্ব হবে। শেষ পর্যন্ত ভেস্তে যেতেও পারে ম্যাচ।

আইএম

 

ক্রিকেট: আরও পড়ুন

আরও