তরুণদের পারফরম্যান্সে স্বস্তি রোডসের

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ | ২ আষাঢ় ১৪২৬

তরুণদের পারফরম্যান্সে স্বস্তি রোডসের

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মে ২১, ২০১৯

তরুণদের পারফরম্যান্সে স্বস্তি রোডসের

বাংলাদেশ দল মানেই পাঁচ সিনিয়র খেলোয়াড়— মাশরাফি, সাকিব, তামিম, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহ। এমনটাই প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেছে। দীর্ঘদিন ধরেই এ পাঁচ জনই টেনে নিয়ে যাচ্ছেন দলকে। দলের জয়ে, বিপর্যয় সামাল দেওয়াতে এই পাঁচজনের কারো না কারো ভূমিকা থাকছে।

তবে এবারকার আয়ারল্যান্ড সিরিজের উল্টে গেছে দৃশ্যপটটা। বিশেষ করে ফাইনালে তরুণরাও জানিয়ে দিয়েছে, দলের দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত তারা।

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে সাকিবকে ছাড়াই মাঠে নামতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। সেই চাপের সাথে যুক্ত হয়েছিল, বৃষ্টি আইনের জটিল হিসাব। শিরোপা জিততে বাংলাদেশের সেদিন প্রয়োজন ছিল ২৪ ওভারে ২১০ রান।

এই লক্ষ্য বেশ কঠিনই। কিন্তু সেই কঠিন ম্যাচটিই সহজে জিতে প্রথমবারের মতো কোন ত্রিদেশীয় সিরিজে শিরোপার স্বাদ পায় বাংলাদেশ। আর এইদিন বাংলাদেশের জয়ে বড় ভূমিকা ছিল দুই তরুণ— সৌম্য সরকার ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের।

সৌম্য ও মোসাদ্দেকের জাদুকরী ব্যাটিংয়ে কাঙ্ক্ষিত জয় পায় বাংলাদেশ। এছাড়া সিরিজ জুড়েই দারুণ ধারাবাহিকতার পরিচয় দিয়েছে বাংলাদেশ। সিনিয়র ও তরুণ খেলোয়াড়দের দারুণ টিম কম্বিনেশনে নিজেদের শক্তিমত্তার পরিচয় দিয়েছে টাইগাররা।

সবচেয়ে বড় কথা সিনিয়র খেলোয়াড়দের প্রতি নির্ভরতা কমিয়ে নতুন শক্তি সঞ্চয় করছে বাংলাদেশ। আর তাতেই দারুণ স্বস্তি পাচ্ছেন দলের কোচ স্টিভ রোডস, ‘তরুণরা এগিয়ে এসে প্রমাণ করেছে যে আমাদের স্কোয়াডটাই আসলে শক্তিশালী। আমরা যেটা চাচ্ছিলাম, তা হলো স্কোয়াডে পারফরমারদের গভীরতা। আর এটি সম্ভব হলেই মানুষ হয়তো সিনিয়র পাঁচের সঙ্গে অন্যদের ব্যাপারে কথা বলতে শুরু করবে।’

ফাইনালে মোসাদ্দেকের পারফরস্যন্স নিয়ে কোচ বলেছেন, ‘ফাইনাল ম্যাচটিতে রান তাড়া খুবই দুর্দান্ত ছিল। দুই-তিনজন খেলোয়াড় অসাধারণ ইনিংস খেলেছে। আপনি মোসাদ্দেককে উদাহরণ হিসেবে দেখতে পারে। সে এমন একজন খেলোয়াড় যে মূল একাদশের সবাইকে নিজেদের জায়গা নিয়ে ভয় ঢুকিয়ে দিতে পারে।’

পিএ