বাংলাদেশই ফেভারিট, দেখে নিন সূচি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ২০১৮ | ২ শ্রাবণ ১৪২৫

বাংলাদেশই ফেভারিট, দেখে নিন সূচি

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:১১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৮

print
বাংলাদেশই ফেভারিট, দেখে নিন সূচি

ঢাকায় ত্রিদেশীয় সিরিজের আমেজ শুরু হয়ে গেছে দিন কয়েক আগে থেকেই। স্বাগতিক বাংলাদেশ বাদে অন্য দুই দল জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল ঢাকায় পৌঁছেছে যথাক্রমে শুক্র ও শনিবার। সোমবার বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে সিরিজ। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচটি মাঠে গড়াবে বেলা ১২টায়। ১৫ তারিখ শুরু হয়ে টুর্নামেন্টটি শেষ হবে ২৭ জানুয়ারি।

২০১০ সালের পর ঢাকায় ফের ত্রিদেশীয় সিরিজের রোমাঞ্চ। দিন-ক্ষণ হিসেব করলে প্রায় আট বছর পর ত্রিদেশীয় সিরিজের স্বাদ পাবে ঢাকার দর্শকরা। আট বছর আগে ভারত ও শ্রীলঙ্কাকে সঙ্গে নিয়ে হয়েছিল সিরিজটি। ঠিক তার আগের বছর শুরুর দিকে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়েকে নিয়ে বসেছিল ত্রিদেশীয় সিরিজ। সেই সিরিজটি ছিল দারুণ রোমাঞ্চে ঠাঁসা। বাংলাদেশকে হারিয়ে দিয়ে ফাইনালে স্বাগতিকদের প্রায় দর্শকই বানিয়ে দিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। কিন্ত শ্রীলঙ্কাকে বোনাস পয়েন্টসহ হারিয়ে ঠিকই ফাইনালে খেলে বাংলাদেশ। শিরোপার মঞ্চে দর্শক বনে যেতে হয় জিম্বাবুয়েকে।

ফাইনালে শ্রীলঙ্কার ৬ রানে ৫ উইকেট ফেলে দিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত জেতা হয়নি টাইগারদের। সেই সিরিজের পর আবার সেই দুই প্রতিপক্ষকে নিয়ে ঢাকায় আরেকটি ত্রিদেশীয় সিরিজ। ঠিক নয় বছর পর। এবার কোন দল ফেভারিট? হাথুরুসিংহে বিদায় নেওয়ার পর নতুন কোচ নিয়োগ দেওয়া না হলেও টাইগারদেরই কি এগিয়ে রাখবে সাম্প্রতিক অতীত?

সর্বশেষ তিন বছরের পারফরম্যান্সে ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশ অন্যতম শক্তি হিসেবেই প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেমি ফাইনালে খেলেছে টাইগাররা। তবে সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ মোটেও ভালো যায়নি লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ১০ উইকেট, ১০৪ রান ও ২০০ রানের মতো বড় ব্যবধানে হারতে হয়েছে। তবে ত্রিদেশীয় হোমসিরিজে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় জানিয়েছেন টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা, ‘ত্রিদেশীয় সিরিজ সত্যিকার অর্থেই আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের পর সবাই খুব হতাশ। এখন যদি আমরা এই টুর্নামেন্ট জিততে পারি তবে সবকিছুই বদলে যাবে।’ আর সবাই জানে, বিশেষ করে ওয়ানডেতে বাংলাদেশ গত কয়েক বছরে কতো কাণ্ডই না ঘটিয়েছে। এখানে দুর্ধর্ষ তারা।

ওদিকে ২০১৭ সাল শ্রীলঙ্কার জন্য ছিল শুধুই আঁধারে ঢাকা একটি বছর। সারা বছরে ২৯টি ওয়ানডে খেলে মাত্র ৫টিতে জয় পায় শ্রীলঙ্কা। ভারত সফর থেকে হতাশা নিয়ে ফিরেছে মাত্র কিছুদিন আগেই। তবে বাংলাদেশের কোচের পদ ছেড়ে শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচের দায়িত্ব নিয়েছেন হাথুরুসিংহে। যার মাধ্যমে ভাগ্য বদলাতে চায় সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

আর জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল অনেক বছর ধরেই ভাঙাচোরা একটি দল। অবশ্য গেল বছরের মাঝে শ্রীলঙ্কার মাটিতে শ্রীলঙ্কাকে ওয়ানডে সিরিজে হারানোর স্মৃতি তাদের আছে। তবে একেবারেই তাজা হতাশার ছোপ ছোপ দাগও তাদের গায়ে লেপ্টে। ইতিহাসের প্রথম চার দিনের টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাত্র ২দিনেই ইনিংস ও ১২০ রানে হেরেছে জিম্বাবুয়ে।

বাংলাদেশে আসার আগে জিম্বাবুয়ের বোলিং কোচের পদ ছাড়েন মাখায় এনটিনি। সাবেক অধিনায়ক হিথ স্ট্রিক দলটির প্রধান কোচের দায়িত্বে। যিনি বাংলাদেশে দীর্ঘদিন কাজ করে গেছেন টাইগারদের বোলিং কোচ হিসেবে। তাই ত্রিদেশীয় সিরিজে পরিকল্পনা করা সহজ হবে তার জন্য। ওদিকে কলপ্যাক চুক্তি পেছনে ফেলে ফের ওয়ানডে জার্সি গায়ে তোলার অপেক্ষায় ব্রেন্ডন টেলর ও কাইল জার্ভিস। সব মিলিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেওয়ার কথা বলছে জিম্বাবুয়েও। দেখার বিষয় শেষ পর্যন্ত কার হাতে ওঠে শিরোপা। তবে তিন দলের সিরিজটি ২০০৯ সালের মতোই রোমাঞ্চকর হবে এমনটাই আশা সবার।

টিএআর/ক্যাট

 
.



আলোচিত সংবাদ