বিশ্বকাপ জিততে সরফরাজদের ইমরানের টিপস

ঢাকা, ২২ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

বিশ্বকাপ জিততে সরফরাজদের ইমরানের টিপস

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৩৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২০, ২০১৯

বিশ্বকাপ জিততে সরফরাজদের ইমরানের টিপস

ইংল্যান্ডের মাটিতে অনুষ্ঠিত সর্বশেষ বৈশ্বিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট, আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা জিতেছে পাকিস্তান। এবার সেই ইংল্যান্ডেই বসছে ওয়ানডে বিশ্বকাপের আসর। মাথায় ‘আন্ডারডগ’ খেতাব থাকলেও পাকিস্তানের আশাটা তাই বড়ই।

সরফরাজ আহমদদের স্বপ্নটা আরও বড় করে তুললেন ইমরান খান। বিশ্বকাপ জেতার জন্য পাকিস্তান দলকে গুরুত্বপূর্ণ কিছু টিপস দিলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ক্রিকেটের মাঠ ছেড়ে এখন কাঁপাচ্ছেন রাজনীতির ময়দান। ভোটের লড়াইয়ে জিতে হয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। তবে শাসকের মুকুট পরলেও ক্রিকেটের প্রতি ইমরান খানের আবেগ-ভালোবাসা, অনুরাগ আগের মতোই আছে। তাই দেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণের পরই হাত দিয়েছেন ক্রিকেট কাঠামো পুর্নগঠন কাজে।

কাজে-কর্মে, কথায় দেশের ক্রিকেটারদের দিয়ে যাচ্ছেন অনুপ্রেরণা। ক্রিকেটের পতি সেই ভালোবাসার টান থেকেই বিশ্বকাপ দলকে কিছু টিপস দিলেন ইমরান।

বিশ্বকাপে কিভাবে সাফল্য পেতে হয়, ইমরানের খুব ভালো করে জানা। ১৯৯২ বিশ্বকাপের তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বেই একমাত্র বিশ্বকাপটি জিতেছে পাকিস্তান।

নিজের সেই অভিজ্ঞতা থেকেই উত্তরসূরিদের কানে সাফল্যের মন্ত্রটা গুজে দিলেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক।

গত বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড, পিবিসি। গতকাল শুক্রবারই বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়া খেলোয়াড়দের নিয়ে অধিনায়ক সরফরাজ ছুটে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে।

সাক্ষাতের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রীকে স্মারক হিসেবে একটা ক্রিকেট ব্যাট ও বিশ্বকাপের জার্সি উপহার দেন অধিনায়ক সরফরাজ। ইমরানও আন্তরিকভাবেই অভিনন্দন জানিয়েছেন দলকে। সবাইকে পাশে বসিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা কথা বলেছেন। দিয়েছেন নানা পরামর্শ, উপদেশ। জুগিয়েছেন অনুপ্রেরণা। জ্বেলে দিয়েছেন দেশপ্রেমের বাতি।

প্রধানমন্ত্রীর এক মুখপাত্র গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, প্রথমেই ইমরান খান গুরুত্বপূর্ণ একটা উপদেশ দেন অধিনায়ক সরফরাজকে। বলেন, দলকে নেতৃত্ব দেয়ার ক্ষেত্রে উদাহরণ সৃষ্টি করতে। ঠিক যেমন দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছিলেন তিনি নিজে।

মুখপাত্রের ভাষ্য অনুযায়ী, ক্রিকেট দলের উদ্দেশ্যে ইমরান বলেছেন, ‘একজন চ্যাম্পিয়ন নিজের অস্ত্রশস্ত্র এবং পরিকল্পনা নিখুঁত করে তবেই মাঠে নামে। বিশ্বকাপ জিততে হলে সবার আগে দরকার টিম স্পিরিট। আশা করি, তোমরা তোমাদের দক্ষতা, খেলোয়াড়ি চেতনা ও আচরণের মাধ্যমে পাকিস্তানের জন্য সম্মান বয়ে আনার চেষ্টা করবে।’

তিনিসহ দেশের সব মানুষ ক্রিকেট দলের পক্ষে আছে জানিয়ে ইমরান বলেন, ‘সারা দেশের মানুষের দোয়া এবং ভালোবাসা থাকবে তোমাদের সঙ্গে। মনে রাখবে, দেশকে প্রতিনিধিত্ব করা অনেক বড় সম্মানের কাজ। গুরুদায়িত্ব। বিশ্বকাপে তোমরাই পাকিস্তানের পতাকাবাহক। তোমাদের প্রতি দেশবাসীর অনেক আশা। সেই আশা পূরণের দায়িত্ব একমাত্র তোমাদের। তোমাদেরই তা পূরণ করতে হবে। চেষ্টা করতে হবে সামর্থের সবটুকু দিয়ে। আশা করি তোমরা তা করবে।’

প্রধানমন্ত্রী ইমরানের এই অনুপেরণাদায়ী টিপস পেয়ে সরফরাজরা নিশ্চয় উজ্জীবিত!

কেআর/আইএম

 

ক্রিকেট: আরও পড়ুন

আরও