পুজারার সেঞ্চুরি-বীরত্বের পরও বিপদে ভারত

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ

পুজারার সেঞ্চুরি-বীরত্বের পরও বিপদে ভারত

পরিবর্তন ডেস্ক ২:০৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৮

পুজারার সেঞ্চুরি-বীরত্বের পরও বিপদে ভারত

চেতেশ্বরা পুজারা

ভারতের সাবেক ওপেনার ভিভিএস লক্ষ্মণ বলেছিলেন, পেইনের দলটা তার দেখা অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে দুর্বল দল। কিন্তু অ্যাডিলেড টেস্টের প্রথম দিন ভিন্ন অভিজ্ঞতাই হল ভারতের। অস্ট্রেলিয়ান বোলাদের তোপের মুখে বৃহস্পতিবার টেস্টে প্রথম দিনই মুখ থুবড়ে পড়েছে ভারতের বিখ্যাত ব্যাটিং লাইন আপ। প্রথম দিন শেষে ২৫০ রান করতেই ৯ উইকেট হারিয়ে বসেছে তারা।

এদিন টস ভাগ্যটা ছিল বিরাট কোহলির। তারপর অবশ্য পুরো দিনে কোন কিছুই তার পক্ষে যায়নি। কোহলিসহ ব্যর্থ হয়েছেন সফরকারীদের সব ব্যাটসম্যানই। তার মধ্যে একমাত্র ব্যতিক্রম ছিলেন চেতেশ্বরা পুজারা। এদিন ধংসস্তুপে দাঁড়িয়ে একাই লড়াই করেছেন তিনি। তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের ষোড়শ টেস্ট সেঞ্চুরি। আর তার সেঞ্চুরি-বীরত্বে ভর দিয়ে প্রথম দিন আড়াইশ রান করেছে ভারত। যদিও বিপদ কাটেনি মোটেও।

এদিন ভারতের বিপর্যয়ের শুরুটা হয় ওপেনার লোকেশ রাহুলের আউট দিয়ে। দিনের দ্বিতীয় ওভারেই জস হ্যাজেলউডের বলে তৃতীয় স্লিপে ধরা পড়েন ওপেনার রাহুল (২)। ভারতের দলীয় রান তখন ৩। তার কিছুক্ষণ পর অন্য ওপেনার মুরালি বিজয়ও (১১) মিচেল স্টার্কের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরের পথ ধরেন।

এরপর উইকেটে আসেন বিরাট কোহলি। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ক্যারিয়ারের তৃতীয় সফরটা ব্যর্থতা দিয়েই শুরু হয় বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানের। দিনের ১১তম ওভারে প্যাট কামিন্সের তৃতীয় বলে উসমান খাজার এক অসামান্য ক্যাচে পরিণত হওয়ার আগে ভারত অধিনায়ক করেন মাত্র ৩ রান।

এরপর তিন নম্বরে নামা পুজারার সাথে এসে যোগ দেন আজিঙ্কা রাহানে। তিনিও বেশিদূর এগুতে পারেননি। ব্যক্তিগত ১৩ রানে হ্যাজেলউডের দ্বিতীয় শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

অনেক দিন পর টেস্ট দলে জায়গা পেয়ে রোহিত শর্মাও খুব বেশি রান করতে পারেননি। দলীয় ৮৬ রানের মাথায় পঞ্চম উইকেট হিসেবে মাঠ ছাড়েন তিনি। নাথান লায়নের বলে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে করেন ৩৭ রান।

এরপর ঋশভ পান্তকে নিয়ে জুটি গড়ার চেষ্টা করেন পুজারা। কিন্তু সেই চেষ্টাও ব্যর্থ হয় পান্ত ব্যক্তিগত ২৫ রানে আউট হয়ে গেলে। একই চেষ্টা করেন তিনি রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সাথেও। অশ্বিনও আউট হয়ে যান ব্যক্তিগত ২৫ রানে।

এরপর ইশান্ত শর্মাও (৪) দ্রুত বিদায় নেন। সর্বশেষ দিনের শেষ উইকেট হিসেবে দুর্ভাগ্যজনক রান আউটের শিকার হলে ১২৩ রানে থেমে যায় পুজারার লড়াকু ইনিংসটি। ২৪৬ বলের ইনিংসটিতে ছিল ২টি ছক্কা ও ৭টি চারের মার।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন স্টার্ক, হ্যাজেলউড, কামিন্স, ও লায়ন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (প্রথম দিন শেষে) :

ভারত : ২৫০/৯ (৮৭.৫ ওভার) (রাহুল ২, বিজয় ১১, পুজারা ১২৩, কোহলি ৩, রাহানে ১৩, রোহিত ৩৭, পান্ত ২৫, অশ্বিন ২৫, ইশান্ত ৪, শামি ৬*; স্টার্ক ২/৬৩, হ্যাজেলউড ২/৫২, কামিন্স ২/৪৯, লায়ন ২/৮৩, হেড ০/২)।

পিএ

আরো পড়ুন :

কোহলির যম প্যাট কামিন্স!

অ্যাডিলেডে এই ‘রেকর্ডটি’ চাননি লায়ন!