নিজের বক্তব্যর সাফাই গাইলেন কোহলি

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

নিজের বক্তব্যর সাফাই গাইলেন কোহলি

পরিবর্তন ডেস্ক ২:২১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৯, ২০১৮

নিজের বক্তব্যর সাফাই গাইলেন কোহলি

বিরাট কোহলি

ত্রিশতম জন্মদিনে নিজের অফিসিয়াল অ্যাপ উন্মোচন করে দারুণ বিপাকে বিরাট কোহলি। ‘বিরাট কোহলি অ্যাপ’ নামে ওই অ্যাপটি মাধ্যমে ভক্তরা ভারত অধিনায়কের সর্বশেষ আপডেট জানতে পারবেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে ম্যাসেজও পাঠাতে পারবেন তারা। কোহলিও এই অ্যাপের মাধ্যমে ভক্তদের নানা প্রশ্নের উত্তর দেবেন।

কিন্তু অ্যাপের প্রথম ভিডিওতেই বেধেছে বিপত্তি। এক ভক্তের প্রশ্নের জবাবে তাকে দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার পরামর্শ নিয়েছিলেন কোহলি। আর তাতেই অন লাইনে ওঠে সমালোচনার ঝড়। বিষয়টি নিয়ে কোহলিকে সতর্ক করেছে খোদ বিসিসিআইও।

অ্যাপে একটি ভিডিও আপলোড করেছেন কোহলি। ভিডিওতে দেখা যায় ভক্তদের বিভিন্ন ম্যাসেজের উত্তর দিচ্ছেন কোহলি। এর মধ্যে এক ভক্তের ম্যাসেজ পড়ে মেজাজ বিগড়ে যায় তার। ওই ভক্ত কোহলিকে লিখেছিলেন, ‘তিনি (কোহলি) অতি মূল্যায়িত ব্যাটসম্যান। তার ব্যাটিংয়ে বিশেষ কিছু নেই। ভারতীয়দের তুলনায় আমার ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদেরই বেশি ভালো লাগে।’

ভক্তের এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া কোহলি তাকে দেশ ছেড়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেছেন, ‘আমার মনে হয় না আপনার ভারতে থাকা উচিত। দেশ ছেড়ে অন্য কোথাও থাকুন। আমাদের দেশে থেকে কেন অন্য দেশকে ভালোবাসছেন? আমাকে পছন্দ করেন না, তাতে কিছু মনে করিনি। কিন্তু আমি মনে করি এ দেশে থেকে আপনার অন্য দেশের কিছু পছন্দ করা উচিত না। আগে নিজের অগ্রাধিকার ঠিক করুন।’

কিন্তু কোহলির এমন মন্তব্য ভালোভাবে নিতে পারেননি অনেক ভক্ত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোহলিকে নিয়ে শুরু হয় সমালোচনার ঝড়। অবশ্য কোহলির পক্ষেও মন্তব্য করেন অনেকে। তাদের দাবী অহেতুকই কোহলিকে নিয়ে সমালোচনা করা হচ্ছে।

এই বিতর্কে এমনকি দুই ভাগ হয়ে গেছে কোহলির পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানগুলোও। ক্রীড়া সামগ্রী প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান পিউমা দাঁড়িয়েছে ভারত অধিনায়কের পক্ষে। ভারতের পিউমার ব্যবস্থাপনা পরিচালক অভিষেক গাঙ্গুলি মনে করেন, কোন কারণ ছাড়াই সমালোচনা করা হচ্ছে কোহলির।

তবে কোহলির আরেক পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তা বলেছেন, ‘এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের যুগ। সে তরুণদের আদর্শ। তাই এ ধরনের মন্তব্য করলে আমাদের ব্র্যান্ড ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলেই মনে করছি।’

এসবের প্রেক্ষিতে মুখ খুলেছেন কোহলি নিজে। নিজের বক্তব্য সাফাই গেয়ে টুইটারে তিনি বলেছেন, ‘আমার মনে হয় ট্রলিং আমার জন্য নয়। আমি বরং ট্রোলড হতে চাইব। তবে “এই ভারতীয়রা...” মন্তব্যের জন্যই জবাব দিয়েছিলাম। আমি ব্যক্তি স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। ব্যাপারটা হালকা চোখে দেখুন এবং উৎসবমুখর মৌসুমটা উপভোগ করুন।’

পিএ