কোহলিদের সঙ্গে ছবি তুলে তোপের মুখে আনুশকা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫

কোহলিদের সঙ্গে ছবি তুলে তোপের মুখে আনুশকা

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:০০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৮

print
কোহলিদের সঙ্গে ছবি তুলে তোপের মুখে আনুশকা

বিরাট কোহলি তার স্বামী। তো চাইলে আনুশকা শর্মা একটা নয়, জীবনসঙ্গী কোহলির সঙ্গে হাজারটা ছবি তুলতে পারেন। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে পোস্ট করলে তা হয়তো ভক্ত-সমর্থকেরা কেটে বাধাই করেও রাখবেন। তাই বলে ভারতীয় ক্রিকেট দলের ফটোসেশনে স্বামী কোহলির পাশে দাঁড়িয়ে ছবি তুলবেন আনুশকা! ব্যাপারটা মানতেই পারছেন ভারতীয়রা। এহেন কাণ্ডজ্ঞান কাজের জন্য ভারতীয় সমর্থকদের তোপের মুখে পড়েছেন বিরাট-পত্নী। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আনুশকার সমালোচনার ঝড় বইছে। তোলা হয়েছে এক গাধা প্রশ্নও।

বিপত্তিকর কাণ্ডটা ঘটে সম্প্রতি লন্ডনে। ভারতীয় ক্রিকেট দল এখন ইংল্যান্ড সফরে রয়েছে। তো সম্প্রতি লন্ডনের ভারতীয় রাষ্ট্রদূত এবং তার স্ত্রী আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন জাতীয় ক্রিকেট দলকে। লন্ডনের ভারতীয় হাইকমিশনারের বাসার উক্ত অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে স্ত্রী আনুশকাকেও সঙ্গে নিয়েই গিয়েছিলেন কোহলি।

তো অর্ভ্যথনা অনুষ্ঠানে জাতীয় দলের ক্রিকেটার, কর্মকর্তাদের একটা অফিসিয়াল ছবিও তোলা হয়। ছবিটিতে দেখা যায়, আনুশকা ঠিক মাঝে স্বামী কোহলির পাশে দাঁড়িয়ে আছেন। অফিসিয়াল সেই ছবিটি নিজেদের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্টও করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। ব্যস, ছবিটি পোস্ট করার পরপরই শুরু হয়ে যায় সমালোচনার ঝড়। মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ট্রল হন আনুশকা।

টুইটার, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামে সরাসরিই ভারতীয়রা প্রশ্ন তোলেন, জাতীয় দলের অফিসিয়াল ছবিতে আনুশকা কেন? আনুশকা কি ক্রিকেট দলের সদস্য? ক্রিকেট দলের অফিসিয়াল ফটোসেশনে কি তিনি থাকতে পারেন? এগুলো তো তাও মার্জিত প্রশ্ন। ট্রলে কেউ কেউ নেতিবাচক প্রশ্নও তুলেছেন, ‘আনুশকা সেখানে কি করে?’ ‘এটা কি হানিমুন পার্টি?’ ‘সে কি এখানে আইটেম গার্ল?’ এমন হাজারো প্রশ্নই ভাসছে ট্রলে।

তীব্র এই সমালোচনার জবাবে কোহলি বা আনুশকা এখনো অবশ্য মুখ খুলেননি। তবে তাদের ঢাল হয়ে সমালোচকদের জবাবটা দিয়েছে বিসিসিআই। দাবি করেছে বোর্ডের নিয়ম মেনেই আনুশকাকে সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন কোহলি। ছবিটাও তুলেছে নিয়ম মেনেই, ‘যেকোনো সফরেই এমনটা ঘটতে পারে। হাইকমিশনার ক্রিকেটারদের সঙ্গে তাদের আত্মীয়স্বজনদেরও আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। কাজেই কে কাকে নিয়ে যাবে, সেটা একান্তই খেলোয়াড়দের সিদ্ধান্ত। অন্য সব দেশের মতো লন্ডনেও খেলোয়াড়দের সঙ্গে তাদের স্ত্রীদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। এখানে প্রটোকল ভঙ্গ করা হয়নি।’

বিবৃতিতে বিসিসিআই এটাও দাবি করেছে, ‘ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড, হাইকমিশনার এবং তার স্ত্রীর আমন্ত্রণেই আনুশকা অর্ভ্যথনায় উপস্থিত হয়েছিলেন আনুশকা। আর অনুষ্ঠানটিও ছিল হাইকমিশনারের বাসায়, দূতাবাস কার্যালয়ে নয়।’

বিসিসিআইয়ের এই ব্যাখ্যা সমালোচনার ঝড় থামাতে পারবে কি?

কেআর

 

 
.


আলোচিত সংবাদ