নেতাকে পেয়ে টাইগারদের দারুণ জয়

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫

নেতাকে পেয়ে টাইগারদের দারুণ জয়

পরিবর্তন ডেস্ক ৮:৫১ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৩, ২০১৮

print
নেতাকে পেয়ে টাইগারদের দারুণ জয়

মাশরাফী যেতেই বদলে গেছে বাংলাদেশ। প্রথম ওয়ানডে জিতে নিয়েছে ৪৮ রানে। দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন নিজেই, ৩৭ রান খরচায় ৪ উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিং লাইন ধসিয়ে দেন তিনি।

২৮০ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে মাশরাফী, মোস্তাফিজ ও মেহেদী হাসান মিরাজের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে স্বাগতিকরা ৯ উইকেটে ২২৯ রান করতে সমর্থ হয়।

ক্যারিবিয়দের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেন শিমরান হেটমায়ের। ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইল করেন ৪০ রান। এর বাইরে ২৯ রান করে অপরাজিত থাকেন দেবেন্দ্র বিশু এবং আলজেরি জোসেপ।

মোস্তাফিজ দুটি এবং মিরাজ ও রুবেল হোসেন একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

দলীয় ২৭ রানেই মাহমুদউল্লাহর তালুবন্দি করে এভিন লুইসকে সাজঘরে ফেরান মাশরাফী। এরপর ৪১ রানে রুবেলের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন সাই হোপ। যদিও পরে টিভি ক্যামেরায় দেখা গেছে, বলটি লেগ স্ট্যাম্প মিস করতো। অবশ্য মিরাজের এমনই একটি বলে নিশ্চিত লেগ বিফোর দেননি আম্পায়ার, বাংলাদেশ রিভিউও নেয়নি।

এরপর গেইল আর হেটমায়ের দলের হাল ধরেন। কিন্তু, দলীয় ৮১ রানে মাহমদুউল্লাহ ও মোসাদ্দেকের যুগলবন্দিতে রান আউটে সাজঘরে ফেরেন গেইল। সেখান থেকে একমাত্র হেটমায়ের ছাড়া আর কেউই টাইগার বোলারদের সামনে দাঁড়াতে পারেনি। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে তারা ২২৯ রান করতে সমর্থ হয়। ম্যাচসেরা হয়েছেন তামিম ইকবাল।

টেস্ট সিরিজ টাইগারদের ক্যারিবিয় সফরকে করে দিয়েছিল দুঃস্বপ্নের। যেখান থেকে বেরিয়ে আসাটা বেশ চ্যালেঞ্জের ছিল। তবে ওয়ানডে সিরিজের শুরুতেই বাংলাদেশ যেন খুঁজে পেল নিজেদের।

গায়ানায় প্রথম ওয়ানডেতে দারুণ ব্যাটিং করল বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল করলেন অপরাজিত ১৩০ রান। সাকিবের ব্যাট থেকে এল ৯৭। রেকর্ড জুটি গড়লেন সাকিব-তামিম। মুশফিকুর রহীম শেষদিকে খেললেন ক্যামিও ইনিংস। তাতে স্বাগতিকদের ২৮০ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দেয় বাংলাদেশ।

গায়ানার প্রোভিডেন্স স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেয় বাংলাদেশ। শুরুটা ভালো না হলেও নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৪ উইকেটে ২৭৯ রান করে টাইগাররা। ক্যারিবিয়দের বিপক্ষে এটিই টাইগারদের সর্বোচ্চ ইনিংস।

ওপেনিংয়ে তামিম ইকবালের সঙ্গী হবেন এনামুল হক বিজয় এমনটা আলোচনা শোনা গিয়েছিল ওয়ানডে দল ক্যারিবিয়ানে পাড়ি দেওয়ার পরই। তবে প্রস্তুতি ম্যাচে লিটন দাস রান পাওয়ায় ছিল দ্বিধা। তবে এদিন লিটন দাসকে একাদশের বাইরে থাকতে হয়।

তামিম ইকবালের ওপেনিং পার্টনার হলেন এনামুল হক বিজয়। কিন্তু, ৩ বল খেলে কোনো রানই করতে পারলেন না এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। দ্বিতীয় ওভারেই জেসন হোল্ডালের বলে নার্সকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন এনামুল।

এরপর তামিম-সাকিবের সংগ্রাম। দিন শেষে যে জুটি দারুণ এক গল্প হয়ে থাকল। দ্বিতীয় উইকেটে নিজেদের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জুটিটি উপহার দিলেন সাকিব-তামিম। দু’জনে যোগ করেন ২০৭ রান। সব মিলে ওয়ানডেতে এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় দুইশ’ ছাড়ানো জুটি। এর আগে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সাকিব ও মাহমুদউল্লাহ গড়েছিলেন দুইশ’ রানের জুটি।

এদিন তামিম ও সাকিব দু’জন এগিয়েছেন হাত ধরাধরি করে। ঠিক একই সমান্তরালে এগিয়েছে দু’জনের ইনিংস। দু’জনে ফিফটিও ছুঁয়েছেন পাশাপাশি। তামিম ফিফটি করার পরপরই সাকিব তুলে নেন ফিফটি। কিন্তু, সাকিব পারেননি নিজের ৩৮তম ফিফটিকে সেঞ্চুরিতে রূপ দিতে। ৯৭ রানে কাটা পড়েন বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টুয়েন্টি অধিনায়ক।

৪৪.৩ ওভার পর্যন্ত নিজেদের জুটিটি নিয়ে যান সাকিব ও তামিম। দু’জনে তখন ৯৭ রানে দাঁড়িয়ে। সবাই অপেক্ষায় দু’জনের ব্যাটে সেঞ্চুরির। কিন্তু, সাকিব হঠাৎ-ই তুলে মারতে গেলেন। দেবেন্দ্র বিশুর বলে হেটমেয়ারের হাতে ধরা পড়েন সাকিব। ১২১ বলে ৬ চারে ৯৭ রান করেন সাকিব।

সাকিব ফেরার পর উইকেটে আসেন সাব্বির রহমান। ৪ বলে ৩ রান করেছেন এই ডানহাতি। তবে যে স্টাম্পিংয়ের শিকার হলেন টেলিভিশন ক্যামেরায় পরে যা বলল সেটি ছিল ভুল সিদ্ধান্ত। উইকেটরক্ষক স্টাম্প ভাঙার আগেই ক্রিজে ছিল সাব্বিরের পা। সাব্বির ফেরার আগেই ওয়ানডেতে নিজের দশম সেঞ্চুরি তোলে নেন তামিম। ১৪৬ বলে শতক পূরণ করেন তামিম।

বাংলাদেশের পক্ষে সবচেয়ে ধীরগতির সেঞ্চুরি এটি। তবে পরের ১৪ বলে আরও ৩০ রান যোগ করেন তামিম। ১৬০ বলে ১০ চার ও ৩ ছক্কায় করেছেন অপরাজিত ১৩০ রান।

পাঁচ নম্বরে নেমে মুশফিকুর রহীম খেলেছেন ছোটখাটো এক ক্যামিও ইনিংস। তামিম ইকবালকে নিয়ে গড়েছেন ৫৪ রানের জুটি। ১১ বলে ৩ ছক্কা ও ২ চারে ৩০ রান করেন মুশফিক। ইনিংসের শেষ বলের ঠিক আগের বলে আউট হন মুশফিক। মাহমুদউল্লাহ শেষ বলে চার হাঁকিয়ে ইনিংস শেষ করেন।

শেষ দুই ওভারে বাংলাদেশ তুলেছে ৪৩ রান। ক্যারিবিয়দের পক্ষে দেবেন্দ্র বিশু সর্বাধিক ২ উইকেট নিয়েছেন। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন আন্দ্রে রাসেল ও জেসন হোল্ডার।

আইএম

আরও পড়ুন...
তামিম-সাকিবের ব্যাটে উইন্ডিজদের সামনে লক্ষ্য ২৮০
পরিণত ব্যাটিংয়ে দশম সেঞ্চুরি তামিমের

 
.


আলোচিত সংবাদ