কপালে ছিল, কী আর করার: মোস্তাফিজ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮ | ১ ভাদ্র ১৪২৫

কপালে ছিল, কী আর করার: মোস্তাফিজ

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৮:৪১ অপরাহ্ণ, জুন ১৩, ২০১৮

print
কপালে ছিল, কী আর করার: মোস্তাফিজ

আইপিএল থেকে বয়ে আনা চোটের কারণে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে খেলতে পারেননি মোস্তাফিজুর রহমান। দল যখন দেরাদুনের উদ্দেশে দেশ ছাড়বে, ঠিক তার আগের দিন রাতে জানা যায় চোটের কারণে খেলতে পারবেন না মোস্তাফিজ। এনিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) তোপের মুখেও পড়তে হয়েছিল কাটার মাস্টারকে। চোটের তীব্রতার কথা লুকিয়ে ছিলেন বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন বোর্ড কর্মকর্তারা।

বর্তমানে মোস্তাফিজুর রহমানের পুনর্বাসন প্রক্রিয়া চলছে। ঈদের ছুটিতে যাওয়ার আগে বুধবারও মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ঘাম ঝরান মোস্তফিজ। আর এসময় এক ফাঁকে মুখোমুখি হন সংবাদমাধ্যমের। চোট প্রসঙ্গটিই ছিল আলোচনার প্রধান বিষয়।

আইপিএল থেকে দুই দুবার চোট নিয়ে ফিরেছেন। আরেকবার আইপিএল খেলতে যাওয়ার আগে ভাবনা কি হবে? প্রশ্নটি উঠতেই মোস্তাফিজের উত্তর, ‘খেলতে গেলে এমন ইনজুরি হবেই। এখন আমার কপালে এমন ছিল, কী আর করার আছে!’

এর আগে ২০১৬ সালে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে প্রথমবার আইপিএলে খেলেন মোস্তাফিজ। সেবার টুর্নামেন্টে সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছিলেন ফিজ। কিন্তু ফিরেছিলেন চোট নিয়ে। পরে সাসেক্সের হয়ে কাউন্টিতে খেলতে গিয়ে চোটে পড়ে ছয় মাসের জন্য ছিটকে যান। এরপর থেকেই চোটের সঙ্গে সখ্যতা মোস্তাফিজের।

এনিয়ে আফসোস হয় কি না জানতে চাইলে মোস্তফিজ বলেন, ‘আফসোস তো হয়ই। কিন্তু সব ক্রিকেটারের জন্যই এটি সত্য। আমি চেষ্টা করি সবসময় ফিট থাকার। তার পরও ইনজুরি হলে তো কিছু করার নেই।’

চোটের বর্তমান অবস্থা নিয়ে মোস্তাফিজ বলেন, ‘এখন অনেক ভালো অবস্থা। প্রায় তিন সপ্তাহ হয়ে গেছে। এখন পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় আছি। প্রতিদিনের রুটিন মেনে চলার চেষ্টা করছি।’

ঈদের ছুটিতে যাবেন। তবে ঈদেও পুনর্বাসনের মধ্যে যেতে হবে মোস্তাফিজকে। সাতক্ষীরার তরুণ বলেন, ‘ঈদের জন্যও কয়েকদিনের প্রোগ্রাম দেয়া হয়েছে আমাকে। যে পরিকল্পনা দেয়া হয়েছে, সেটি মেনে চলার চেষ্টা করছি। ঈদের পর আবার পরীক্ষা করে দেখবে।’

টিএআর/এমএসআই

 
.


আলোচিত সংবাদ