আশরাফুল-তাইবুরের সেঞ্চুরিতেও জিতল না কলাবাগান

ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫

আশরাফুল-তাইবুরের সেঞ্চুরিতেও জিতল না কলাবাগান

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৬:১২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮

print
আশরাফুল-তাইবুরের সেঞ্চুরিতেও জিতল না কলাবাগান

মোহাম্মদ আশরাফুল ও তাইবুর রহমানের দুইটি ঝলমলে সেঞ্চুরিতেও এবারের ঢাকা লিগে হারের বৃত্ত থেকে বের হতে পারেনি কলাবাগান ক্রীড়া চক্র। বরং লিটন দাসের অপরাজিত সেঞ্চুরিতে কলাবাগানের বিপক্ষে ৮ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। মঙ্গলবার প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ২৯০ রান করে কলাবাগান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৪৫ ওভারে ৮ উইকেট হাতে রেখেই প্রয়োজনীয় ২৯১ রান তুলে নেয় প্রাইম দোলেশ্বর। ম্যাচ সেরা হয়েছেন লিটন দাস।

এবারের লিগে প্রথম দুই ম্যাচেই হেরেছে কলাবাগান। কোন ম্যাচেই ভাল শুরু পায়নি দলটি। সাভারে বিকেএসপির ৪ নম্বর মাঠে এদিনও এর ব্যতিক্রম হয়নি। দলীয় ৪৭ রানের মধ্যেই ৩ জন ব্যাটসম্যানকে হারায় কলাবাগান। আরও বড় বিপর্যয় ঘটতে পারত। কিন্তু ক্রিজে যে ছিলেন আশরাফুল! তাইবুরকে নিয়ে চতুর্থ উইকেটে তিনি গড়েন ১৮৮ রানের জুটি। ১২৫ বল খেলে তুলে নেন লিস্ট-এ ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরি। তবে সেঞ্চুরি করার পর আউট হয়ে যান আশরাফুল। ১৩১ বলে ব্যক্তিগত ১০৪ রানে দোলেশ্বরের বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানির বলে উইকেট হারান এই ৩৩ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। ১১টি চারে নিজের ইনিংস সাজান আশরাফুল। দলীয় ২৩৫ রানে চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনি সাজঘরে ফেরার পর মাঠে নামেন কলাবাগান অধিনায়ক মুক্তার আলী। তিনি ১৬ বলে ২ চার ও ৩ ছক্কায় অপরাজিত ৪০ রানের এক ঝড়ো ইনিংস খেলেন। অন্যপ্রান্তে সেঞ্চুরি তুলে নেন তাইবুরও। ১০৯ বলে ১১৪ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান তার ইনিংস সাজান ৯ চার ও ৩ ছক্কায়। দোলেশ্বরের পক্ষে দুটি করে উইকেট পেয়েছেন সানি ও মানিক খান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার ইমতিয়াজ হোসাইন ও লিটন দাস দলকে ভালো সূচনা এনে দেন। দুইজনের ওপেনিং জুটিতে ১৫ ওভারে ৮৫ রান তুলে ফেলে প্রাইম দোলেশ্বর। তবে ব্যক্তিগত ৪০ রানে ইমতিয়াজ আউট হয়ে যান। এরপর ৩ নম্বরে ফজলে মাহমুদ (১১) দলীয় ১২১ রানের মাথায় আউট হয়ে গেলেও অন্য প্রান্তে অবিচল থাকেন লিটন। মার্শাল আইয়ুবের সাথে ১৭০ রানের জুটি গড়ে দলকে এবারের লিগের দ্বিতীয় জয় এনে দেন লিটন। ১২৩ বলে অপরাজিত ১৪৩ রানের ঝড়ো ইনিংটিতে ছিল ৩টি ছয় ও ১৪টি চারের দৃষ্টিনন্দন প্রদর্শনী। অন্যদিকে মার্শাল ৯১ রান করতে খেলেছন মাত্র ৭৩ বল। ছয় মেরেছেন ২টি ও চার ৯টি।

এ জয়ের ফলে ৩ ম্যাচে ২ জয় নিয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয় স্থানে আছে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। অন্যদিকে কোন জয় না পাওয়া কলাবাগান আছে টেবিলের তলানিতে।

পিএ

 
.


আলোচিত সংবাদ