ভারতকে হারাতে যথেষ্ট সক্ষম বাংলাদেশ

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ভারতকে হারাতে যথেষ্ট সক্ষম বাংলাদেশ

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৫৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০১৯

ভারতকে হারাতে যথেষ্ট সক্ষম বাংলাদেশ

সাকিব আল হাসানের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে সোমবার বিশ্বকাপে আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ।

৬২ রানের এই জয়ে বাংলাদেশের সেমিফাইনাল স্বপ্ন এখনও বেচে রয়েছে। যদিও এই পথ মাড়াতে ভারতের মতো হেভিওয়েটদের হারাতে হবে।

বিজয়ের পর সংবাদ সম্মেলনেও সাকিব বিশ্বকাপে সে স্বপ্নের কথা জানালেন। আরও পষ্ট করলে, ঠিক এবারো ভারতকে বিপর্যস্ত করার পক্ষেই ব্যাট চালালেন, যেমনটি ২০০৭ সালের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ঘটিয়েছিল।

বিশ্বের সেরা এই অলরাউন্ডার স্বীকার করেন, ভারত কঠিন প্রতিপক্ষ। তাদের হারানোও কষ্টসাধ্য। কাজটি করতে হলে বাংলাদেশকে অসাধারণ পারফর্মেন্স করতে হবে।

বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ৬ ম্যাচে ৪৭৬ রান নিয়ে শীর্ষে রয়েছেন সাকিব। দুটি শতকের সঙ্গে পেয়েছেন তিনটি হাফসেঞ্চুরি। সঙ্গে ১০টি উইকেট।

অস্ট্রেলিয়ান গ্রেট মাইক হাসি থেকে শুরু করে সাবেক ক্রিকেটাররা তো ইতোমধ্যে সাকিবকে টুর্নামেন্ট সেরা ঘোষণায় দিয়ে দিয়েছেন।

ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ ২ জুলাই। বিরাট কোহলিদের বিশ্লেষণে সপ্তাহখানেক সময় পাবেন মাশরাফিরা। তাই হয়তো ভারতকে হারানোর বিষয়ে সাকিব সাহসেরই জয়গান গেলেন।

‘তারা (ভারত) শীর্ষে রয়েছে। হয়তো বিশ্বকাপে চোখও করেছেন। সুতরাং তাদের হারানো এত সহজ হবে না। কিন্তু, ওই ম্যাচে আমরা আমাদের সেরাটাই দেব’, যোগ করেন সাকিব।

তিনি বলেন, ‘অভিজ্ঞতা জয়ের জন্য সাহায্য করে বটে। কিন্তু, বিশ্বে অভিজ্ঞতায় শেষ কথা নয়। ভারতকে হারাতে হলে আমাদের সেরা ক্রিকেটই খেলতে হবে।’

সাকিব বলেন, ‘ভারতে বিশ্বমানের খেলোয়াড় রয়েছে, যারা যে কোনো সময় ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন। আমরাও আমাদের সেরাটাই দেব এবং আমি বিশ্বাস করি, দল হিসেবে ভারতকে হারাতে আমরা যথেষ্ট সক্ষম।’

সোমবার আফগানিস্তানকে হারাতে সাকিবের ব্যাট থেকে আসে ৫১ রানের ইনিংস। ২৬২ রান তাড়া করতে গিয়ে আফগানিস্তান সমান ২০০ রানে গুটিয়ে যায়।

৩২ বছর বয়সী সাকিব এই ম্যাচে বল হাতে একাই ধ্বংসযজ্ঞ চালান। ক্যারিয়ার সেরা ২৯ রানে ৫ ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে তিনি একাধিক রেকর্ডও এদিন নিজের করে নেন।

সাকিব এখন বিশ্বকাপের ইতিহাসে মাত্র দ্বিতীয় খেলোয়াড় যিনি এক ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি এবং ৫ উইকেট পাওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন। ঠিক এই কাজটিই ২০১১ সালের বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে করেছিলেন সদস্য অবসরে যাওয়া ভারতের অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং।

আইএম

 

ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯: আরও পড়ুন

আরও