পাকিস্তান হারল পাকিস্তানের মতোই!

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯ | ৪ আষাঢ় ১৪২৬

পাকিস্তান হারল পাকিস্তানের মতোই!

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:২৫ অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০১৯

পাকিস্তান হারল পাকিস্তানের মতোই!

পাকিস্তান মানেই অপ্রত্যাশিত কিছুর প্রদর্শনী। যাদের সহজ কথায় বিশ্বজুড়ে বলা হয় ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ দল। টন্টনে নিজেদের নামের পূর্ণ সার্থকতা রেখেই অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারল দলটি। হারল ৪১ রানের ব্যবধানে।

অস্ট্রেলিয়ার করা ৩০৭ রান বর্তমান সময়ে খুব বড় লক্ষ্য যেমন নয়, আবার সহজ লক্ষ্যও নয়। কিন্তু ইনিংসে নানা নাটকীয়তা তৈরি করে, জয়ের তুমুল সম্ভাবনা জাগিয়েও ‘অবিশ্বাস্য’ ভাবে হেরে গেল তারা। হ্যাঁ অবিশ্বাস্যই বটে, তবে পাকিস্তানের জন্য নয়। কারণ এটাই পাকিস্তান!

এদিন ব্যাট করতে নেমে ৫৬ রানে দুই উইকেট হারায় পাকিস্তান। কিন্তু ইমাম-উল-হক ও মোহাম্মদ হাফিজের ব্যাটে দারুণ ভাবে ঘুরে দাঁড়ায় তারা। এই দুইজনের ব্যাটে জয়ের ভিত্তিও তৈরি হয়। আস্কিং রান রেটের সাথে ঠিকঠাক পাল্লা দিয়ে দেড়শ কাছাকাছি পৌঁছে যায় তারা।

কিন্তু ‘ঠিকঠাক’ শব্দটা যে পাকিস্তানের অভিধানে নেই! সুতরাং যা হবার নয়, তা-ই হল! দলীয় ১৩৬ রানের মাথায় হঠাৎই ভেঙে যায় হাফিজ-ইমাম জুটি।

দুইজনের জুটিতে ৮০ রান আসার পর হঠাৎ বিপর্যয় নামে তাদের ইনিংসে। ১৩৬ থেকে ১৪৭ রানের মধ্যে হারায় ইমাম-উল-হক (৫৩), হাফিজ (৪৬) ও শোয়েব মালিককে (০)।

এরপর কিছুক্ষণ বিরতি। দলীয় ১৬০ রানের মাথায় ষষ্ঠ উইকেট হিসেবে আসিফ আলী (৫) বিদায় নিলে দারুণ চাপে পড়ে যায় পাকিস্তান।

ক্রিজে ব্যাটসম্যান কেবল একজন— অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। তার সাথে যোগ দেন হাসান আলী। যখন মনে হচ্ছিল পাকিস্তানের হার সময়ের ব্যাপার মাত্র তখনই জ্বলে উঠলে হাসান আলী।

বল হাতে খুব একটা সফল ছিলেন না হাসান। সেকারণেই কিনা ব্যাট হাতে দারুণ বিধংসী হয়ে উঠলেন তিনি। অধিনায়কের সাথে মাত্র ২৩ বলে গড়েন ৪০ রানের জুটি। ব্যক্তিগত ৩২ রানে আউট হন হাসান। তার ১৫ বলের ইনিংসটিতে ছিল ৩টি করে ছক্কা ও চারের মার।

এরপর ওয়াহব রিয়াজ এসে পাকিস্তানের জয়ের সম্ভাবনা আরো উজ্জ্বল করেন। সরফরাজের সাথে জুটি গড়েন ৬৪ রানের। এক সময় মনে হচ্ছিল এই জুটিতেই জয়ের নোঙরে পৌঁছে যাবে পাকিস্তান। তখনই আবার ধাক্কা। ব্যক্তিগত ৪৫ রানে আউট হয়ে যান রিয়াজ। তার ব্যাটে যেমন উজ্জ্বল হয়েছিল জয়ের আলো, তেমনি তার বিদায়েই নিভে যায় জয়ের সম্ভাবনাও। দলীয় রান তখন ২৬৫।

এরপর আর ১ রান করতেই অবশিষ্ট ২ উইকেট হারিয়ে হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে পাকিস্তান। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন পাকিস্তানের অধিনায়ক। ৫ নম্বরে নেমে দীর্ঘ ৯৬ মিনিট লড়াই করে ৪০ রান করেন তিনি। আর ৪৫.৪ ওভারের ২৬৬ করে অল আউট পাকিস্তান।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৩৩ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন প্যাট কামিন্স। মিচেল স্টার্ক ও কেন রিচার্ডসন নিয়েছেন ২টি করে উইকেট। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন আজকের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান ডেভিড ওয়ার্নার।

পিএ