বাজাজ মোটরসাইকেল ও থ্রি হুইলারের আসল পার্টস আনল রানার ট্রেডপার্ক

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ | ৫ শ্রাবণ ১৪২৫

বাজাজ মোটরসাইকেল ও থ্রি হুইলারের আসল পার্টস আনল রানার ট্রেডপার্ক

পরিবর্তন প্রতিবেদক ২:১৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৮

print
বাজাজ মোটরসাইকেল ও থ্রি হুইলারের আসল পার্টস আনল রানার ট্রেডপার্ক

বাজাজ মোটরসাইকেল, এলপিজি ও ডিজেলচালিত থ্রি হুইলারের ভোক্তাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে তাদের উন্নতমানের সেবা দিতে এবার এগিয়ে এসেছে রানার গ্রুপ। গ্রুপের সাবডিসিয়ারি কোম্পানি রানার ট্রেড পার্ক লিমিটেড বাজাজ মোটরসাইকেল এবং এলপিজি ও ডিজেল চালিত থ্রি হুইলারের আসল পার্টস বাংলাদেশে বাজারজাতকরণের দায়িত্ব পেয়েছে। সোমবার রানার গ্রুপের সহকারী মহাব্যস্থাপক (মিডিয়া এবং পিআরও) মো. ওয়াহিদ মুরাদ এতথ্য জানিয়েছেন।

রানার গ্রুপ সূত্রে জানা যায়, বাজাজ এবং রানার অটোমোবাইলসের মধ্যে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ক্রমেই গভীর ও সুদৃঢ় হচ্ছে। বাজাজের এলপিজি ও ডিজেল চালিত থ্রি হুইলার বাজারজাতকরণের জন্য রানার গ্রুপকে ব্যবসায়িক পার্টনার হিসেবে বেছে নেওয়ার মধ্যে দিয়ে সেই সম্পর্কের সূচনা হয়। এবার রানার অটোমোবাইলস কে বাজাজ মোটরসাইকেল ও বাজাজআরই থ্রি হুইলারের খুচরা আসল যন্ত্রাংশ বাংলাদেশের বাজারে সরবরাহের জন্য নির্বাচিত করেছে ভারতের শীর্ষ এই অটোমেটিভ ব্র্যান্ড।

রানার গ্রুপ সূত্রটি আরো জানায়, এজন্য গত ফেব্রুয়ারি মাসে উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি সম্পন্ন হয়। এই চুক্তির আওতায় রানার ট্রেড পার্ক লিমিটেডের মাধ্যমে সারা দেশব্যাপী রানারের বিক্রয় নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ভোক্তাদের দ্বোড় গোড়ায় বাজাজের আসল পার্টস পাওয়া যাবে। এরই মধ্যে রানারের ওয়ারহাউজে এসব পার্টস এসে গেছে। 

রানার গ্রপ অফ কম্পানিজের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান বলেন, ‘রানার এবং বাজাজ বাংলাদেশে এক যুগান্তকারী অধ্যায়ের সূচনা করেছে। ভারতের শীর্ষ এই অটোমেটিভ ব্র্যান্ডের সঙ্গে বাংলাদেশের শীর্ষ অটোমোবাইল ম্যানুফ্যাকচারিং ব্র্যন্ডের এই সম্পর্ক উভয় প্রতিষ্ঠানের ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি ও বাজার সম্প্রসারণে ভূমিকা রাখবে। এদেশের রাস্তায় ১০ লাখের বেশি মোটরসাইকেল ও থ্রিহুইলার চলাচল করে। যেখানে উন্নতমানের বিক্রয়োত্তর সেবায় আসল পার্টসের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। রানার ট্রেড পার্ক লিমিটেড সেই চাহিদা পূরণে সর্বাত্তক চেষ্টা করবে।’

বাজাজ অটোলিমিটেডের ভাইস প্রেসিডেন্ট (ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস) মনিষ সিং রাঠোর বলেন, ‘বাজাজের বিশ্বস্ত ব্যবসায়িক পার্টনার হিসেবে রানার তাদের সক্ষমতা, পেশাদারিত্ব এবং উদ্ভাবনী নানা উদ্যোগের মাধ্যমে বাজাজ মোটরসাইকেল এবং আরই থ্রি হুইলারের আসল পার্টস সারা বাংলাদেশে পৌছে দেবে। বাজাজের ভোক্তারা এখন থেকে আরো সহজে হাতের নাগালেই পাবেন আসল পার্টস।’ 

রানার ট্রেড পার্ক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুকেশ শর্মা বলেন, ‘চুক্তির আওতায় রানার ট্রেড পার্ক লিমিটেড বাজাজ জেনুইন পার্টস ডিস্ট্রিবিউশনের জন্য তিন স্তরের বিক্রয় নেটওয়ার্ক গড়ে তুলবে। আগামী ৫ থেকে ৬ মাসের মধ্যে রানার সারা দেশের প্রত্যেকটি প্রান্তে বাজাজ মোটরসাইকেলের জেনুইন পার্টস পৌঁছে দেবে। এক্ষেত্রে রানার নানা উদ্ভাবনী পদ্ধতি অবলম্বন করবে। ডিস্ট্রিবিউশন চ্যানেল ছাড়াও এসব পার্টস গ্রাহকরা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমেও কিনতে পারবেন। এসব পার্টসের ডেলিভারি সর্বোচ্চ ২৪ ঘন্টার মধ্যে দেওয়া হবে। আমাদের মূল লক্ষ বাজাজ মোটরসাইকেল ব্যবহারকারীদের আরো ভালো সেবা দেওয়া। ভারতের গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বাজাজের উন্নত প্রযুক্তির তিন চাকার মালমাল পরিবহন যান এবং চার চাকার যাত্রী পরিবহন গাড়ি ‘কিউট’ বাজারে আনে রানার অটোমোবাইলস। বাজাজের নতুন এসব যানবাহনে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা যাবে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস (এলপিজি) ও ডিজেল। বাংলাদেশে পরিবহনের চাহিদা পূরণে বাজাজের নতুন বাহন ‘কিউট’ এবং মালামাল পরিবহনে বাজাজের তিন চাকার যান আনতে বাজাজের সঙ্গে একটি সমঝোতা চুক্তি করেছিল রানার অটোমোবাইল। গত বছরের ১৩ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) এসবগাড়ির আনুষ্ঠানিক বাজারজাতকরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। থ্র্রিহুইলারের সাফল্যেও ধারাবাহিকতায় এবার বাজাজের মোটরসাইকল ও থ্রি হুইলারের পার্টস বাজারজাতকরণেরও দায়িত্ব পেল রানার গ্রুপ।

টিএটি/এফএম

 
.



আলোচিত সংবাদ