বৃহস্পতিবার আলেকজান্ডার ইউপি নির্বাচন, সবক’টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ

ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫

বৃহস্পতিবার আলেকজান্ডার ইউপি নির্বাচন, সবক’টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি ১১:০০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭

print
বৃহস্পতিবার আলেকজান্ডার ইউপি নির্বাচন, সবক’টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার আলেকজান্ডার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বৃহস্পতিবার। ইতিমধ্যে কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সামগ্রী পাঠানো হয়েছে।

১০টি কেন্দ্রের মধ্যে একটি ওয়ার্ডের ভোট গ্রহণ স্থগিত রয়েছে। এছাড়া অপর সব কয়টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে ধরে সন্ধ্যার আগেই কেন্দ্রে কেন্দ্রে পর্যাপ্ত আইন শৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করেছে নির্বাচন কমিশন। তবে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে একাধিক প্রার্থীর অভিযোগ ও শঙ্কা রয়েছে।

নির্বাচন অফিস সুত্রে জানাযায়, স্থানীয় আলেকজান্ডার ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বৃহস্পতিবার। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের আনোয়ার হোসেন, বিএনপির হাবিব উল্লাহ বাহার ও জেএসডির নাজমুল হাসানসহ ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১৫ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। ৯টি কেন্দ্রে প্রায় ২৩ হাজার ভোটার রয়েছে।

এদিকে বিএনপি প্রার্থীর প্রধান নির্বাচন সমন্বয়কারী জামাল হোসেন অভিযোগ করে বলেন, সরকার দলের প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে বিভিন্ন জায়গা থেকে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে আসা হয়েছে। তারা এখন কেন্দ্রের আশে পাশে অবস্থান করছেন। এমন পরিস্থিতিতে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাচন কমিশনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

জেএসডি প্রার্থী নাজমুল হাসান অভিযোগ করে বলেন, তার কর্মী সমর্থকদের হুমকি ধামকি দিচ্ছে সরকার দলের প্রার্থীর লোকজন। যা সুষ্ঠু নির্বাচনের আলামত নন বলে দাবি করেন এ প্রার্থী। এছাড়া ১, ২, ৫, ৬ ও ৭ নং কেন্দ্র অত্যান্ত ঝুঁকিপূর্ণ দাবি করেন তিনি।

তবে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহেদ এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন সুষ্ঠু ভোট হলে আওয়ামী লীগের প্রার্থীই জয়ী হবে।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আরিফুল ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে জানান, এ পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাননি তিনি। সব কয়টি কেন্দ্রই অতিগুরুত্বপূর্ণ হিসেবে ধরে সুষ্ঠ ও অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠানে সব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

পুলিশ, বিজিবি, র্যা ব, কোস্টগার্ড ও আনসারসহ প্রত্যেকটি কেন্দ্রে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ৮টি মোবাইল টিম কাজ করবে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

পিএস/এএফ/

 
.


আলোচিত সংবাদ