শ্বশুড় বাড়ির কলহে যুবকের আত্মহত্যা

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

শ্বশুড় বাড়ির কলহে যুবকের আত্মহত্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি ৯:৩৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ০১, ২০১৯

শ্বশুড় বাড়ির কলহে যুবকের আত্মহত্যা

কুমিল্লার লাকসামে রবিউল হোসেন (২০) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সন্ধ্যায় লাকসাম পৌর শহরের মুড়াদরগাহ রোডের ভাড়া বাসা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

রবিউল পার্শ্ববর্তী মনোহরগঞ্জ উপজেলার খুরগাও গ্রামের মনির হোসেনের পুত্র। মাত্র তিনমাস পূর্বে বিয়ে করেছিলেন তিনি। এরপর থেকেই স্বপরিবারে লাকসাম পৌর শহরে ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছেন।

তবে গেলো কিছুদিন যাবৎ শ্বশুড় বাড়ির লোকদের সাথে তার মতবিরোধ চলে আসছিলো। বৃহস্পতিবার স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুড়বাড়ি বেড়াতে গেলেও শুক্রবার একাই বাড়ি ফিরে আসেন বলে জানিয়েছে তার স্বজনরা। তাদের অভিযোগ, শ্বশুড় বাড়ির সাথে কলহের জের ধরে আত্মহত্যা করেছে রবিউল।

লাকসাম থানার ওসি মনোজ কুমার দে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শনিবার কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হবে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মাত্র ৩ মাস পূর্বে লাকসাম উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর পশ্চিমপাড়া (ঝালুয়াকান্দি) এলাকার রফিকুল ইসলামের মেয়ে শারমিন আক্তারের সাথে পারিবারিকভাবে রবিউল হোসেনের বিয়ে হয়। এরপর থেকেই রবিউল পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে লাকসাম পৌর শহরের এ বাসাটিতে ভাড়ায় বসবাস করে আসছেন।

রবিউলের ছোটবোন নিশু জানান, ‘বৃহস্পতিবার বউকে সাথে নিয়ে শ্বশুর বাড়ি বেড়াতে গিয়ে শুক্রবার বিকেলে ৩টায় বউকে ছাড়াই একাকি বাড়ি ফিরে আসে সে। এ সময় তার শ্বশুর বউকে তার সাথে আসতে দেয়নি বলে ঘরে উচ্চবাচ্য করে।’

রবিউলের চেচামেচির কারণে নিশু তার ছোটভাই সুমনকে নিয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে যায়। ঘন্টা খানেক পর তারা ঘরে এসে দেখে রবিউল ঘরের সিলিংয়ের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলে আছে। ওইসময় ঘরের দরজা খোলা ছিল।

খবর পেয়ে সন্ধ্যায় লাকসাম থানার এসআই বেলাল হোসেন ও এসআই রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

জেডএস/টিএটি

 

কুমিল্লা: আরও পড়ুন

আরও