আবদুল মালেক উকিলের ৩২ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

আবদুল মালেক উকিলের ৩২ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

নোয়াখালী প্রতিনিধি: ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

আবদুল মালেক উকিলের ৩২ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম সংগঠক, বঙ্গবন্ধুর বিশ্বস্ত সহকর্মী, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সাবেক স্পীকার ও মন্ত্রী পরিষদ সদস্য এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রাক্তন সভাপতি ও প্রয়াত জননেতা আবদুল মালেক উকিলের ৩২তম মৃত্যু বার্ষিকী আজ।

দিবসটি উপলক্ষ্যে নোয়াখালী আবদুল মালেক উকিল স্মৃতি সংরক্ষণ কমিটি, আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে নোয়াখালী কোট মসজিদ সংলগ্ন মরহুমের কবর জিয়ারত, পুষ্পস্তবক অর্পণ ও ফাতেহা পাঠ করা হবে।

এছাড়া, জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সকালে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা, কোরআন খতম, মিলাদ মাহফিল এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ, বাঁধের হাট আবদুল মালেক উকিল ডিগ্রি কলেজ, নোয়াখালী মোহামেডান স্পোটিং ক্লাব ও মালেক উকিল স্মৃতি সংসদসহ বিভিন্ন সংগঠন আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল সহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহন করেছে।

আবদুল মালেক উকিল ১৯২৪ সালের ১লা অক্টোবর নোয়াখালী সদর উপজেলার রাজারামপুর গ্রামের এক সম্ভান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ ও এলএলবি পাস করে ওই বছরেই নোয়াখালী বার অ্যাসোসিয়শনে এবং ১৯৬২ সালে হাইকোর্টে যোগদান করেন। এরপর ১৯৬৪ সালে পাকিস্তান বার কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৪৬ সাল থেকে রাজনৈতিক জীবনে তিনি দফায় দফায় কারাবরণ করেন। ১৯৫৬ ,১৯৬২,১৯৬৫ সালে পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য হিসেবে সমন্বিত বিরোধী দলীয় নেতা মনোনীত হন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে বহির্বিশ্বে বাংলাদশের পক্ষে জনমত গঠনে তার অবদান জাতি কৃতজ্ঞাচিত্তে আজও স্মরণ করছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারের আমলে তিনি প্রথমে স্বাস্থ্যমন্ত্রী পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং জাতীয় সংসদের স্পিকার নির্বাচিত হন। ১৯৮৬ সালে তিনি বিরোধী দলের উপ-নেতা হিসেবে যোগদান করেন।

১৯৭৮ সালের ৫ মার্চ তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৮৭ সালের ১৭ অক্টোবর ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসাপাতালে ৬৩ বছর বয়সে এই সংগ্রামী নেতা ইন্তেকাল করেন।

এমকে/ ইএইচএস

 

চট্টগ্রাম: আরও পড়ুন

আরও