কসবায় ভুয়া চর্ম-যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের দণ্ড

ঢাকা, রবিবার, ১৩ অক্টোবর ২০১৯ | ২৭ আশ্বিন ১৪২৬

কসবায় ভুয়া চর্ম-যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের দণ্ড

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ১১:৩১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৭, ২০১৯

কসবায় ভুয়া চর্ম-যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের দণ্ড

ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার কসবায় কাজী জানে আলম (৫৫) নামের এক ভুয়া চিকিৎসককে আটক করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভূক্তভোগী স্থানীয় কয়েকজনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই ভূয়া চিকিৎসককে আটক করা হয়। এ সময় ঘটনাস্থেলই ভ্রাম্যমান আদালত চিকিৎসককে এক মাসের কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।

আদালত পরিচালনা করেন কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী হাকিম মাসুদ উল আলম। দণ্ডপ্রাপ্ত কাজী জানে আলম কসবা উপজলার গোপীনাথপুর গ্রামের বাসিন্দা। দুপুরে তাকে আটকের পর সোমবার বিকালে ব্রা‏হ্মণবাড়িয়া জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ভ্রাম্যমাণ আদালত ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কাজী জানে আলম কসবা উপজেলার গোপীনাথপুর বাজারে লিজা মেডিকেল হল নামের একটি ওষুধের ফার্মেসিতে দীর্ঘদিন ধরে চর্ম, যৌন ও চোখের চিকিৎসা করে আসছেন। তার চিকিৎসায় কয়েকজন ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে পড়ে। ক্ষুদ্ধ হয় কয়েকজন তার বিরুদ্ধে অভিযাগ করেন।

সোমবার দুপুর কসবা উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ উল আলম, উপজলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা মো. নুর-ই-আলম, কসবা থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. আল আমিন ওই লিজা মেডিকেল হলে অভিযান চালান। ওই সময় ভুয়া চিকিৎসক কাজী জানে আলম কয়েকজন রোগীর চিকিৎসা করছিলেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে কাজী জানে আলম তার চিকিৎসকের সনদপত্র দেখাত পারেননি। তার সামনেই রহিমা বেগম ও কুদ্দুছ মিয়া তার চিকিৎসায় অসুস্থ হওয়ার কথা বলেছেন। এ সময় নির্বাহী হাকিম ও কসবা উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ উল আলম ভ্রাম্যমাণ আদালত বসান। ওই আদালত কাজী জানে আলম তার দোষ স্বীকার করেন। আদালত কাজী জানে আলমকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।

কসবা উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ উল আলম বলেন, ওই চিকিৎসক দীর্ঘদিন ধরে গোপীনাথপুর এলাকায় চর্ম, যৌন ও চোখের চিকিৎসা করে আসছেন। স্থানীয় কয়েকজন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযানকালে চিকিৎসকের কোনো কাগজপত্র দেখাতে না পারায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ওই ভুয়া চিকিৎসককে এক মাসের কারাদণ্ড ও নগদ ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ লোকমান হোসেন বলেন, কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ভুয়া চিকিৎসক কাজী জানে আলমকে সোমবার বিকালে ব্রা‏‏হ্মণবাড়িয়া জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

এআর/এআরই

 

চট্টগ্রাম: আরও পড়ুন

আরও