লবু দাস সম্পর্কে নতুন তথ্য পুলিশের

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

লবু দাস সম্পর্কে নতুন তথ্য পুলিশের

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ৮:২৩ অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০১৯

লবু দাস সম্পর্কে নতুন তথ্য পুলিশের

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে মন্দিরে ঘুমন্ত অবস্থায় লিটন কুমার ঘোষ (৪৫)নামের এক শ্রমিকের শরীর থেকে মাথা দ্বিখণ্ডিত করে ব্যাগে ভরে থানায় গিয়ে হাজির হওয়া লবু দাস ওরফে নবকৃষ্ণ দাস (৪৮) এর বিরুদ্ধে নিজ চাচাকেও হত্যার অভিযোগ ছিলে।

আপন চাচা ও নাসিরনগর সদর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার মতিলাল দাসকে হত্যার অভিযোগ থেকে সম্প্রতি সে বেকসুর খালাস পেয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানা যায়।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে গৌরমন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল চন্দ্র চৌধুরী বলেন, নাসিরনগর পশ্চিমপাড়া বাজারের কাছে মতিলাল মেম্বার হত্যা ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছিল। তখন এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় স্থানীয়রা লবু দাসকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

তিনি বলেন, আগের মামলায় কার দুর্বলতায় আইনের ফাঁক-ফোকর দিয়ে সে বের হলো তা এখন দেখার বিষয়। বের হয়ে আসার পরেও সে অনেককে হুমকি-ধামকি দিয়েছে। কিন্তু তারা পুলিশের কাছে অভিযোগ দেয়নি। তবে তার চালচলনে মানসিক সমস্যা আছে বলে মনে হতো।

নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজেদুর রহমান জানান, কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরের মৃত লাল ঘোষের ছেলে লিটন ঘোষ নাসিরনগরে তার বোনের বাড়িতে এসেছিল। দুপুরে গৌর মন্দিরের নাট মন্দিরের মঞ্চে সে ঘুমাচ্ছিল। এসময় লবু দাস একটি দা দিয়ে লিটন ঘোষের মাথা শরীর থেকে দ্বিখণ্ডিত করে ফেলে।

পরে সেই মাথা ও দা নিয়ে নাসিরনগর থানায় হাজির হয় লবু দাস। মরদেহ উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

এআর/এএসটি

আরও পড়ুন...
নাসিরনগরে ঘুমন্ত ব্যক্তিকে হত্যা করে মাথা নিয়ে থানায় হাজির

 

চট্টগ্রাম: আরও পড়ুন

আরও