সোনাগাজীতে ডাকাতকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ | ২ আষাঢ় ১৪২৬

সোনাগাজীতে ডাকাতকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

ফেনী প্রতিনিধি ৮:১৬ অপরাহ্ণ, মে ২৬, ২০১৯

সোনাগাজীতে ডাকাতকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

ফেনীর সোনাগাজীতে এক প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতিকালে শাহাদাত হোসেন (২৭) নামে এক ডাকাত দলের সদস্যকে আটক করে গনপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

উপজেলার বগাদানা ইউনিয়নের আউরারখিল গ্রামের আবুদাবী প্রবাসী আবদুল আলীর নতুন বাড়িতে শনিবার দিবাগত গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে।

সোনাগাজী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামাল হোসেন জানান, শনিবার দিবাগত গভীর রাত ২টার দিকে প্রবাসী হাজী আবদুল আলী মিয়ার ঘরের জানালার গ্রিল কেটে ৭/৮ জনের সশস্ত্র ডাকাতদল ঘরে প্রবেশ করে। এসময় পরিবারের লোকজনদের অস্ত্রের মুখে জিন্মি করে নগদ এক লাখ টাকা ও ৪টি মোবাইল ফোন লুটে নেয়।

তিনি আরো বলেন, বাড়ির লোকজনের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে ডাকাতদলের বাকি সদস্যরা পালিয়ে গেলেও শাহাদাত হোসেন পুকুরের পানিতে ঝাঁপ দেয়। পরে গ্রামবাসী তাকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে সোনাগাজী মডেল থানা পুলিশে সোপর্দ করেন। শাহাদাত একই ইউনিয়নের গুনক গ্রামের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আবু তাহেরের ছেলে।

এদিকে এলাকাবাসী ঘটনাস্থল থেকে গ্রিল কাটার যন্ত্র (কাটার মেচিন) উদ্ধার করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। ডাকাতদের পিটুনিতে আহত হয়েছেন প্রবাসী আবদুল আলীর ছেলে কাজীর হাট বাজারের বিকাশ দোকানের ব্যবসায়ী আবদুল হালিম। তিনি সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। পরে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন। 

আটক ডাকাত শাহাদাত পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নজরুল ইসলাম ও তুহিন নামে আরো দুইজনসহ ৭ জনের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। শাহাদাতের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসা ও মোটর সাইকেল চুরিসহ অসংখ্য অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে।

পিএসএস