সোনাগাজীতে স্কুলশিক্ষক ও পুলিশের ঘরে দুর্বৃত্তদের আগুন

ঢাকা, ১৭ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

সোনাগাজীতে স্কুলশিক্ষক ও পুলিশের ঘরে দুর্বৃত্তদের আগুন

ফেনী প্রতিনিধি ১০:০১ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৬, ২০১৯

সোনাগাজীতে স্কুলশিক্ষক ও পুলিশের ঘরে দুর্বৃত্তদের আগুন

ফেনীর সোনাগাজীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কুমুদ বিহারী রায় ও তার ছেলে পুলিশ কনস্টেবল দ্বিপায়ন চন্দ্র রায়ের তিনটি বসতঘর পেট্রোল ঢেলে পুড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ চরচান্দিয়া গ্রামের ইন্দ্র কেরানী বাড়িতে মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার জানায়, চর চান্দিয়া নাছির লন্ডনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কুমুদ বিহারী রায়ের সঙ্গে একই বাড়ির মাখন চন্দ্র রায়ের ছেলে রিপন চন্দ্র রায় গংদের সাথে দীর্ঘদিন যাবত জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে।

আদালতের আদেশে গত ৭ মার্চ কুমুদ বিহারী রায়ের দখলকৃত জমিতে থাকা রিপন গংদের পোল্ট্রি খামারের ঘর উচ্ছেদ করে কুমুদ বিহারীকে তার মালিকীয় জমি বুঝিয়ে দেন থানা পুলিশ। এতে রিপন গং ক্ষিপ্ত হয়ে কুমুদ বিহারীকে হুমকি দিতে থাকে।

কুমুদ বিহারী দাবি করেন, এ ঘটনার জের ধরে রিপন চন্দ্র রায়, সন্তোষ কুমার রায়ের ছেলে দিলীপ চন্দ্র রায়, শ্রী কৃষ্ণ রায়, ভগবান চন্দ্র রায়ের ছেলে সুভাষ চন্দ্র রায়, সুভাষ চন্দ্র রায়ের ছেলে শিমুল চন্দ্র রায় ও রয়েল রায়ের নেতৃত্বে মুখোশধারী ১৫/২০ জন দুর্বৃত্ত পেট্রোল ঢেলে কুমুদ বিহারীর বসতঘরে অগ্নিসংযোগ করে। মুহূর্তে আগুনের লেলিহান শিখা চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে।

এ সময় তার দুটি বসতঘর, তার ছেলে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশে কর্মরত কনস্টেবল দ্বিপায়ন চন্দ্র রায়ের একটি বসতঘর নগদ এক লাখ টাকা, মালামালসহ সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে যায়। এতে তার ৫০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস দল, পুলিশ ও স্থানীয়রা রাত আড়াইটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ব্যাপারে কুমুদ বিহারী রায় বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেছেন।

সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এইচআর

 

চট্টগ্রাম: আরও পড়ুন

আরও