৬ দিনেও মেলেনি মন্টি-দয়ার সন্ধান

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫

৬ দিনেও মেলেনি মন্টি-দয়ার সন্ধান

প্রান্ত রনি, রাঙ্গামাটি ১২:০৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০১৮

৬ দিনেও মেলেনি মন্টি-দয়ার সন্ধান

অপহরণের পর কেটে গেছে ছয় দিন। কিন্তু, এখন পর্যন্ত ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) সমর্থিত হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রীর কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

গত ১৮ মার্চ হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও রাঙ্গামাটি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দয়া সোনা চাকমাকে দুর্বৃত্তরা অপহরণ করেন।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ইউপিডিএফের (গণতান্ত্রিক) আহ্বায়ক তপন জ্যোতি চাকমা ওরফে বর্মা, জনসংহতি সমিতির (এমএনলারমা) নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমাসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেছেন অপহৃত দয়া সোনা চাকমার বাবা বৃষধন চাকমা।

সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে মন্টি ও দয়া সোনা চাকমাকে ফিরে পাওয়ার আশা ক্ষীণ হচ্ছে। সংগঠনের নেতাকর্মীদের অভিযোগ, পুলিশের নাকের ডগায় আসামিরা ঘুরলেও তাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। দুই নেত্রীকে উদ্ধারে পুলিশ ভূমিকা নিয়েও তাদের প্রশ্ন রয়েছে।

তবে পুলিশের দাবি, দুর্গম এলাকা হওয়ায় অভিযানে সময় লাগছে। কিন্তু, মন্টি ও দয়া চাকমাকে উদ্ধারে তারা সক্ষম হবেন।

মন্টি চাকমার বড় ভাই সুভাষ চাকমা পরিবর্তন ডটকম জানান, পাহাড়ে নারীরা রাজনীতি করছে, অধিকার আদায়ে প্রতিবাদ করছে, এটা অনেকের সহ্য হচ্ছে না। এজন্যই নারীদের কণ্ঠরোধ করতে গুটিবাজি করা হয়েছে।

তিনি জানান, বোন অপহৃত হওয়ার পর থেকে তার বাবা-মায়ের শরীরের অবস্থাও ভালো নেই। সারাদিন কান্নাকাটি করছেন।

হিল উইমেন্স ফেডারেশনের রাঙ্গামাটি জেলার সহ-সভাপতি রূপসী চাকমা পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘মন্টি ও দয়া চাকমাকে বর্মা বাহিনীর সন্ত্রাসীরা অপহরণ করেছে। এখন তারা মামলা তুলে নিতে চাপ দিচ্ছে।’

পাহাড়ি ছাত্রপরিষদের রাঙ্গামাটি জেলা শাখার সভাপতি কুনেন্টু চাকমা পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘১৯৯৬ সালে নারী নেত্রী কল্পনা চাকমা অপহৃত হন। এখনঅব্দি তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। মন্টি ও দয়াকেও একইভাবে অপহরণ করা হয়েছে। তাদের ফিরে পাওয়া নিয়েও আমাদের আশা দিনকে দিন ক্ষীণ হয়ে আসছে।’

তিনি অবিযোগ করেন, ‘অপহৃত দুই নেত্রীকে উদ্ধারে পুলিশ কোনো ভূমিকা পালন করছে না। এমনকি দুর্বৃত্তরা মামলা তুলে নেয়ার হুমকি দিলেও অপহৃতদের পরিবারের কোনো নিরাপত্তা দেয়া হচ্ছে না।’

এদিকে, মন্টি চাকমা ও দয়া সোনা চাকমার সন্ধান না পেয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন নারী নেত্রী ও অধিকারকর্মীরা। তাদের উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গ্রিনহিলের নির্বাহী পরিচালক ও নারী নেত্রী টুকু তালুকদার বলেন, ‘অপহৃত দু’জনই রাজনীতিক। তারা এভাবে হাওয়া হয়ে যাবে, তা মেনে নেয়া কঠিন। আমরা আশাবাদী, পুলিশ প্রশাসন তাদের উদ্ধার করবে।’

রাঙ্গামাটি কোতোয়ালি থানার ওসি সত্যজিৎ বড়ুয়া পরিবর্তন ডটকমকে জানান, মামলার আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। একই সঙ্গে দুই নেত্রীর সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতা চলছে। কিন্তু, দুর্গম এলাকা হওয়ায় অভিযান চালাতে সময় লাগছে।

পিআর/এসএফ/আইএম