দেবরের আগুনে দগ্ধ ভাবী ঢামেকে

ঢাকা, রবিবার, ১৩ অক্টোবর ২০১৯ | ২৭ আশ্বিন ১৪২৬

দেবরের আগুনে দগ্ধ ভাবী ঢামেকে

ঢামেক প্রতিবেদক ৭:১৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৭, ২০১৯

দেবরের আগুনে দগ্ধ ভাবী ঢামেকে

কুমিল্লায় দেবরের দেয়া আগুনে দগ্ধ ভাবী ফারজানা আকতার (২২)কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার সকালে কুমিল্লা জেলার তিতাস থানার দুখিয়ার কান্দি গ্রামের এ ঘটনাটি ঘটে।

দগ্ধ অবস্থায় তাকে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটিতে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক এএসআই আব্দুল খান বলেন, মেয়েটি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

চিকিৎসকের বরাদ দিয়ে তিনি আরও বলেন, ফারজানার শরীরের ২৭ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

দগ্ধ মেয়েটির নানা খালেদ ভূঁইয়া অভিযোগ করে বলেন, ফারজানা স্বামী সাইফুল মোল্লা মালেশিয়া প্রবাসী। তাদের এক সন্তান রয়েছে। সাইফুল বিদেশে থাকায় তার ভাই ফয়সাল মোল্লা কুপ্রস্তাব দিতো, এমনকি তাকে বিয়ের প্রস্তাবও দিতো। এতে ফারজানা রাজি না হওয়ায় তাকে বিভিন্নভাবে অশ্লীল আচরণ ও অমানুষিক নির্যাতন করতো।

এক পর্যায় সোমবার সকাল ৭টার সময় কেরোসিন তেল ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় ভাবীর শরীরে। পরে অন্যরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়।

তিনি বলেন, সে বর্তমানে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি রয়েছে। আমরা থানায় অভিযোগ করেছি।

এইচআর

 

রাজধানী: আরও পড়ুন

আরও