শামীমের কার্যালয়ে কোটি কোটি টাকা, অস্ত্র ও মদ

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

শামীমের কার্যালয়ে কোটি কোটি টাকা, অস্ত্র ও মদ

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৪:২০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯

শামীমের কার্যালয়ে কোটি কোটি টাকা, অস্ত্র ও মদ

যুবলীগের সমবায় বিষয়ক সম্পাদক এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীমকে আটকের পর তার কার্যালয় থেকে নগদ ১০ কোটি টাকা ও প্রায় ২০০ কোটি টাকার এফডিআর চেক উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

এছাড়া তার কাছ থেকে একটি অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র ও বিদেশি মদের বেশ কয়েকটি বোতল উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকালে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেম জানান, শামীমের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজির অভিযোগ রয়েছে। শামীমসহ মোট আট জনকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে তার একাধিক দেহরক্ষীও রয়েছে। তার কাছ থেকে যে অত্যাধুনিক অস্ত্রটি উদ্ধার করা হয়েছে তার কোন বৈধতা আছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

জানা গেছে, শুক্রবার সকালে দিকে সাদা পোশাকে নিকেতনের ৫ নম্বর সড়কের ১১৩ নম্বর ভবনে শামীমের বাসায় অভিযান চালানো হয়। সেখান থেকে শামীকে নিয়ে নিকেতনের ১৪৪ নম্বর ভবনে তার অফিসে অভিযান শুরু করে র‌্যাব।

যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক শামীম মূলত ঠিকাদার হিসেবেই পরিচিত।

রাজধানীর সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় শামীম ঠিকাদারি কাজ করে থাকেন। শুধু তাই নয় গণপূর্ত ভবনের বেশি ভাগ ঠিকাদারি কাজ তিনিই করেন।

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে শামীম যুবদলের রাজনীতিতে যুক্ত ছিলেন বলে জানা যায়। ওই সময় তিনি বিএনপি নেতাদের সমর্থনপুষ্ট হিসেবে গণপূর্ত ভবনের ঠিকাদারির নিয়ন্ত্রণে নেন। যুবদলের সহসম্পাদকের পদেও ছিলেন তিনি।

পরে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এলে যুবলীগের রাজনীতিতে সক্রিয় হয়ে ওঠেন শামীম।

পিএসএস/এসবি
আরও পড়ুন...
কে এই শামীম

 

রাজধানী: আরও পড়ুন

আরও