যুবলীগ নেতা খালেদের ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

যুবলীগ নেতা খালেদের ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৬:৪১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯

যুবলীগ নেতা খালেদের ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান

রাজধানী ঢাকার মতিঝিলের ফকিরাপুলে ‘ইয়ংমেন্স ক্লাব’ নামে একটি অবৈধ ক্যাসিনোতে (জুয়ার আসর) অভিযান চালিয়েছে র‍্যাব।

অবৈধভাবে চালানো এই জুয়ার আসরের মালিক মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া।

বুধবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে এই অভিযান শুরু করে র‍্যাব-৩।

অভিযানের নেতৃত্ব দিচ্ছেন র‍্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম এবং র‌্যাব ৩ (সিপিসি-৩) এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান।

অভিযানের শুরুতে র‍্যাবের সদস্যরা ফকিরাপুলের ওই ক্লাবটি ঘিরে ফেলেন। 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান, বিকাল সাড়ে ৫টা থেকে ‘ইয়ংমেন্স ক্লাব’ নামের ক্যাসিনোতে অভিযান চলছে।

সারওয়ার আলম বলেন, ফকিরাপুলের ওই ক্যাসিনোতে অভিযান চালিয়ে জুয়া খেলা অবস্থায় নারী পুরুষসহ ১৪২ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এছাড়া সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ জুয়ার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। সেগুলো গণনা করা হচ্ছে।

এদিকে গুলশান-২ এর ৫৯ নম্বর রোডের খালেদ ভূঁইয়ার ৫ নম্বর বাসাটি ঘিরে রেখেছে বলেও খবর পাওয়া গেছে।

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় যুবলীগের কয়েকজন নেতাকে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, ‘শোভন-রাব্বানীর চেয়ে ওরা খারাপ। চাঁদাবাজি বৈধ করতে আবার আমার নামে দোয়া মাহফিল করে। আমি চাঁদার টাকায় দোয়া চাই না।

তিনি আরও বলেছিলেন, ‘তাদের একজন রাজধানীতে অস্ত্র উচিয়ে চলেন। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর কাউকে তো নামতে দেখিনি। আর এখন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় তারা অস্ত্র উচিয়ে চলাফেরা করে।’

তাদের একজনকে ক্রসফায়ার থেকে বাঁচিয়ে দিয়েছেন উল্লেখ করে শেখ হাসিনা সাবধান করে দেন।

এরপর থেকেই মিডিয়াতে উঠে আসে ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাঈল চৌধুরী সম্রাট ও সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার নানা কর্মকাণ্ড। এরই মধ্যে আজকে অভিযান শুরু।

পিএসএস-এসইউজে/এসবি

 

রাজধানী: আরও পড়ুন

আরও