মা-বাবা লাপাত্তা, শিশুটির দেখাশোনা করছেন ডাক্তাররা

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

মা-বাবা লাপাত্তা, শিশুটির দেখাশোনা করছেন ডাক্তাররা

ঢামেক প্রতিনিধি ৬:০০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯

মা-বাবা লাপাত্তা, শিশুটির দেখাশোনা করছেন ডাক্তাররা

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ার পর দিন থেকে নিখোঁজ রয়েছেন প্রসূতি মা ও বাবা। শনিবার সন্ধ্যায় নিজেদের মধ্যে ঝগড়ার এক পর্যায়ে নবজাতক শিশুকে রেখেই তার মা-বাবা চলে যান বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ওই ঘটনায় রাজধানীর শাহবাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়রি (জিডি) করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এদিকে ঢামেকের নবজাতক বিভাগে ভর্তি ওই শিশুটির দেখাশোনা এখন চিকিৎসকরাই করছেন। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে কৌটার দুধ খাওয়ানো হচ্ছে।

রোববার দুপুরে ঢামেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাসির উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, শিশুটির শারীরিক অবস্থা এখন মোটামুটি ভাল। সে নবজাতক বিভাগে রয়েছে। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে বাইরে থেকে এনে কৌটার দুধ খাওয়ানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, মেয়েটির মা-বাবার খোঁজ না পেয়ে শাহবাগ থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। পুলিশ তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। যদি তাদের খুঁজে না পাওয়া যায়, তখন আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাকে ছোটমণি নিবাসে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

ঢামেক হাসপাতালের প্রশাসনিক ব্লকের ওয়ার্ড মাস্টার আবদুল গফুর পরিবর্তন ডটকমকে জানান, নবজাতকটির বাবা রাসেল ও মা নাহার। তারা মিরপুর-১ এ থাকেন। গত ১৩ সেপ্টেম্বর ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সিজারের মাধ্যমে শিশুটির জন্ম হয়।

হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, শিশুটির জন্মের পর মা ও সন্তানকে ১০৬ নম্বর ওয়ার্ডে রাখা হয়। ওয়ার্ডের আশপাশের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছি, শনিবার সন্ধ্যায় নবজাতকটির মা-বাবার মধ্যে ঝগড়া হয়। এরপর থেকে তারা দুজনই নিখোঁজ রয়েছেন।

শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান জানান, নবজাতকের মা-বাবাকে খুঁজে না পেয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জিডি করেছে। হাসপাতালের নথি থেকে মা-বাবার নাম পেয়েছি, তবে ঠিকানার জায়গায় শুধু মিরপুর-১ লেখা। সেখানে একটি মোবাইল নাম্বার দেয়া ছিল, আমরা ওই নাম্বারে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে নাম্বারটি বন্ধ পেয়েছি। তার মা-বাবাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।

এমআর-পিএসএস

 

রাজধানী: আরও পড়ুন

আরও