এটিএম হ্যাকার ইউক্রেনিয়ানদের সঙ্গে থাকা যুবকটি কে? (ভিডিও)

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

এটিএম হ্যাকার ইউক্রেনিয়ানদের সঙ্গে থাকা যুবকটি কে? (ভিডিও)

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৪:১০ অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০১৯

এটিএম বুথ থেকে জালিয়াতি করে টাকা তুলতে গিয়ে গ্রেফতার ইউক্রেনের নাগরিকরা মাত্র ৮ দিনের ভিসা নিয়ে গত ৩০ মে বাংলাদেশে এসেছিলেন। জালিয়াতির মাধ্যমে বুথ থেকে টাকা উত্তোলনই তাদের উদ্দেশ্য ছিল। চক্রটি ওই দিন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে সাদা টি-শার্ট পরিহিত এক যুবকের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। সেই যুবকের সন্ধান চেয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

বুধবার দুপুরে ডিএমপির ফেসবুক পেজ ও অনলাইন পোর্টাল ডিএমপি নিউজে ওই যুবকের সন্ধান চেয়ে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার ফুটেজ প্রকাশ করে পুলিশ।

এর আগে গত ১ জুন খিলগাঁও তালতলা মার্কেটের বিপরীতে ডাচ বাংলা ব্যাংকের এটিএম বুথের সিস্টেম হ্যাক করে অর্থ আত্মসাৎ সময় ৬ জন ইউক্রেন নাগরিককে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। ওই ঘটনায় খিলগাঁও থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়।

মামলার তদন্ত করতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তারা রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকার এই সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেন।

ভিডিও ফুটেজ বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ৩০ মে ইউক্রেনের ৭ নাগরিক যখন বিমানবন্দর এসে নামে, তখন দায়িত্বরত নিরাপত্তাকর্মীদের সাথে কথা বলে তারা ক্যানপি গেট দিয়ে বের হন। সে সময় ৭ জন ইউক্রেনিয়ানের সঙ্গে সাদা টি-শার্ট পরিহিত এক যুবক কথা বলেন। পরে ওই যুবকসহ ইউক্রেনিয়ানরা বিমানবন্দর থেকে বের হয়ে চলে যায়।

ডিএমপির মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান বলেন, এটিএম বুথের সিস্টেম হ্যাক করে অর্থ আত্মসাৎ করার ঘটনায় এরই মধ্যে ৬ জন ইউক্রেন নাগরিককে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। সিসিটিভি ফুটেজে বিমানবন্দরে তাদের সাথে একজন যুবককে দেখা গেছে। সন্দেহভাজন হিসেবে তার পরিচয় খুঁজছে পুলিশ।

তিনি আরো জানান, সন্দেহভাজন এই ব্যক্তির কোন পরিচয় কিংবা কোন তথ্য পাওয়া গেলে ডিএমপি’র গোয়েন্দা পূর্ব বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, খিলগাঁও জোনাল টিমের সঙ্গে (০১৭১৩৩৯৮৫৯৬) যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানানো হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ১ জুন রাত ৮টার দিকে খিলগাঁও তালতলা মার্কেটের বিপরীতে সি ব্লকের, বাড়ি নং-৯৩৩/সি'র নিচতলায় ডাচ বাংলা ব্যাংকের এটিএম বুথের সিস্টেম হ্যাক করে অর্থ আত্মসাৎ করার সময় দেনিস ভিতোমস্কিকে (২০) গ্রেফতার করা হয়।

পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে হোটেল ওলিও ড্রিম হ্যাভেন থেকে আরো ৫ ইউক্রেন নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়। তারা হলেন- নাজারি ভজনোক (১৯), ভালেনতিন সোকোলোভস্কি (৩৭), সের্গেই উইক্রাইনেৎস (৩৩), শেভচুক আলেগ (৪৬) ও ভালোদিমির ত্রিশেনস্কি (৩৭)। তবে অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে ভিটালি নামে এক ইউক্রেনিয়ান পালিয়ে যায়।

পিএসএস

 

রাজধানী: আরও পড়ুন

আরও