অন্য রকম ঢাকা, জমজমাট বিনোদন স্পট

ঢাকা, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

অন্য রকম ঢাকা, জমজমাট বিনোদন স্পট

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ১২:৩২ অপরাহ্ণ, জুন ০৬, ২০১৯

অন্য রকম ঢাকা, জমজমাট বিনোদন স্পট

ঈদের দিন বুধবার ভোর থেকেই ঝুম বৃষ্টি। রাজধানীর মানুষেরা ঘর থেকে বের হতেই পারেননি। তাই ঈদ উদযাপনে ছিল না উৎসব।

তবে বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই ঝকঝকে রোদ। এই সুযোগে সবাই ঈদের দিনের আনন্দ পুষিয়ে নিতে রাস্তায় বের হয়েছেন। এরই প্রভাব পড়েছে নগরীর বিনোদন স্পটগুলোতে।

নগরীতে এই আনন্দের সঙ্গে নতুন মাত্রা যোগ করেছে ফাঁকা সড়ক। রাজধানীর রাস্তায় স্বাভাবিক সময়ে যে দূরত্ব যেতে দীর্ঘ সময় গাড়িতে বসে থাকতে হয়, সেটি মাত্র কয়েক মিনিটেই যাওয়া সম্ভব হচ্ছে।

এতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেছেন অনেকে। তাদের ভাষ্য, এভাবে সব সময় থাকলে ভাল হতো। বাসযোগ্য ঢাকা বলা যেতো।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঈদে বাড়তি মুনাফার আশায় ঢাকা সিটির বাসগুলো দূরপাল্লার ভাড়ায় দিয়েছেন মালিকেরা। এতে করে নগরীতে পরিবহন সঙ্কট রয়েছে। এরই সুযোগে গলাকাটা ভাটা নেয়া হচ্ছে। বলা হচ্ছে, ঈদের বকশিস। এ নিয়ে গাড়ির লোকদের সঙ্গে যাত্রীদের ঝামেলাও হচ্ছে।

ঈদের পরের দিন বৃহস্পতিবার রাজধানীর মোহাম্মাদপুর থেকে বনানী হয়ে উত্তরার সড়ক রীতিমত ফাঁকা। বনানী বাসস্ট্যান্ডে বাসের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে বেশ কয়েকজনকে। 

তারা জানান, ঈদের আগে বাড়ি ফেরার ঝক্কি-ঝামেলা এড়াতে আজ গ্রামের বাড়ি যাচ্ছেন। কিন্তু, সড়কে গাড়ি তেমন নেই।

ঈদের পরের দিন পরিজনের সঙ্গে দেখা করতে বাড়ি ফেরা মানুষের ভিড়ও দেখা গেছে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনসহ বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ডে।

তাদের ভাষ্য, ঈদের আগে টিকেট না পাওয়া এবং যানজট থেকে বাচঁতে তারা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

রাস্তায় কিছু সিএনজি চললেও তারা চড়া ভাড়া নিচ্ছেন। যাত্রীদের অভিযোগ, রাস্তা চলাচলে সময় কম লাগলেও দামে ছাড়ছে না এসব সিএনজি চালকরা।

ঢাকার বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ভিড় জমতে শুরু করেছে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে। সেখানে সন্তানদের নিয়ে বেড়াতে গেছেন অভিভাবকরা।

এদিকে ফাঁকা ঢাকার নানা অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে নানা ব্যবস্থা। রাজধানীর থানাগুলোর আশেপাশের এলাকায় চলছে পুলিশের টহল।

ফাঁকা রাস্তায় বেপরোয়া গাড়ি সামলাতে তল্লাশি চৌকিগুলো কিছুদূর পরপর গতিরোধক অবস্থায় রাখা হয়েছে। ফলে গেল বছরগুলোতে ঈদের সময় ঢাকায় বেপরোয়া গাড়ি চালানোয় দুর্ঘটনার খবর মিলেলেও এবার তেমন কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

এসএস/আইএম

 

রাজধানী: আরও পড়ুন

আরও