পথশিশুদের জন্য নববর্ষ ভাতা উৎসর্গ সরকারি কর্মকর্তার

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬

পথশিশুদের জন্য নববর্ষ ভাতা উৎসর্গ সরকারি কর্মকর্তার

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৬:২১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০১৯

পথশিশুদের জন্য নববর্ষ ভাতা উৎসর্গ সরকারি কর্মকর্তার

চারিদিকে নববর্ষের আয়োজন। ব্যানার, ফেস্টুন, মঙ্গল শোভাযাত্রায় বরণ করা হচ্ছে বাংলা নতুন বছরকে। রাজধানী ছাড়িয়ে জেলা, উপজেলা এমনকি প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়েছে এ উৎসব আমেজ।

তবে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আয়োজনটা একটু ভিন্ন। দেড়শোর বেশি সুবিধাবঞ্চিত পথশিশু নববর্ষের আনন্দে ভিন্নভাবে উল্লাসে মেতে উঠেছে। 

তারা একসঙ্গে দুপুরের খাবার খাচ্ছে। স্বদেশ মৃত্তিকা ফাউন্ডেশনের আয়োজনে এ অনুষ্ঠানে নানান পেশার মানুষও যোগ দিয়েছে।

এ ফাউন্ডেশন শতাধিক পথশিশুদের শিক্ষার দায়িত্ব নিয়ে কাজ করে চলছে গত কয়েক বছর। তবে এতসব আয়োজনের মধ্যে আজ একজনের প্রয়াস ছিলো সবার থেকে ভিন্ন।

বাংলাদেশ সরকারের সিনিয়র সহকারী সচিব ও নবীন কথাসাহিত্যিক মনদীপ ঘরাই এদিন পথশিশুদের মাঝে মিশে যান, ওদের সঙ্গে সময় কাটান। সেই সঙ্গে নববর্ষে সরকারি ভাতার পুরোটাই তুলে দিয়েছেন ওদের হাতে।

এ বিষয়ে মনদীপ ঘরাই বলেন, অর্থটা সামান্য জানি, প্রয়াসটা মন থেকে। নববর্ষ ভাতা তো দেয়া হয় উৎসব উদযাপনের জন্য। এরচেয়ে ভালোভাবে উদযাপন কি আর সম্ভব? ওদের মুখে হাসি ফোটালেই নববর্ষ সত্যিকার অর্থে শুভ হবে।’

উল্লেখ্য, গত বছর তিনি নববর্ষ ভাতা উৎসর্গ করেছিলেন বাসে হাত হারানো এবং পরবর্তীতে মৃত্যুবরণ করা রাজীবের জন্য। আর মনদীপ ঘরাইয়ের লেখা বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেছিল এই স্বদেশ মৃত্তিকা ফাউন্ডেশনের তিনজন পথশিশু। তার বই থেকে প্রাপ্ত লাভের পুরোটাই দেয়া হবে ওদের শিক্ষা সহায়তায়।

এ বিষয়ে স্বদেশ মৃত্তিকা ফাউন্ডেশনের ফাউন্ডার চেয়ারম্যান আকবর হোসেন বলেন, ‘আজকের এ আয়োজন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের কথা চিন্তা করে। আমরা সবসময় ওদের পাশে আছি। মনদীপ স্যারের মহতী উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই।’

অনুষ্ঠানস্থলে দেখা মেলে বাংলাদেশ বেতারের উপস্থাপক সজীব দত্তের। তিনি বলেন, ‘সব শুভ উদ্যোগের সাথে আছি সবসময়। আমরা বেতার থেকেও আলোকিত উদ্যোগগুলো নিয়ে আলোকবর্তিকা নামে একটি প্রয়াস নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি।’

বিভিন্ন সমাজকর্মের জন্য আলোচিত সরকারি কর্মকর্তা মনদীপ ঘরাই তরুণ প্রজন্মের জন্য এ রকম নানান দৃষ্টান্ত  রেখে চলেছেন।

ওএস/এইচআর