মারধরের জেরে অবরুদ্ধ ঢাকা কাস্টমস হাউস

ঢাকা, ২৩ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

মারধরের জেরে অবরুদ্ধ ঢাকা কাস্টমস হাউস

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:৫৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৯

মারধরের জেরে অবরুদ্ধ ঢাকা কাস্টমস হাউস

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন ঢাকা কাস্টমস হাউস অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ করছেন সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টের কর্মীরা।

ঢাকা কাস্টমসের জয়েন্ট কমিশনার মাহবুবের অপসারণ দাবিতে সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে তারা বিক্ষোভ করছেন।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ঢাকা কাস্টমসের বাইরে বিক্ষোভ করছেন সিঅ্যান্ডএফের কর্মীরা। আর ভেতরে সিঅ্যান্ডএফের সভাপতি ফরিদ আহমেদের নেতৃত্বে কাস্টমস কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

জানা গেছে, দুপুরে বারি এন্টারপ্রাইজ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের মালিক আনিসুর রহমানকে মারধর করা হয়। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টের কর্মীরা বিকেলে কাস্টমস হাউস অবরুদ্ধ করে রাখে।

বারি এন্টারপ্রাইজের মালিক আনিসুর রহমান বলেন, ‘একটি মালের (পণ্যের) ভ্যালুর কাগজপত্র নিয়ে জেসি মাহবুবের রুমে গিয়েছিলাম দুপুর ২টার দিকে। কাগজপত্রে পণ্যের ভ্যালু কম লিখেছি বলে তিনি আপত্তি জানান এবং আমাকে মারধর শুরু করেন। এরপর আমার আইডি কার্ড রেখে দেন। জোরপূর্বক আমার কাছ থেকে লিখিতও নেন তিনি।’

বিক্ষোভের বিষয়ে সিঅ্যান্ডএফের বন্দর সম্পাদক আলমগীর হোসেন পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘ঢাকা কাস্টমসের  জয়েন্ট কমিশনার মাহবুব। কিছু হলেই উনি লোকজনকে ধরে মারেন। কাল (রোববার) আমাদের একজনকে ধরে মেরেছেন, আজও আমাদের সিঅ্যান্ডএফের এক মালিককে তার রুমের ভেতরে ফেলে অনেক মারধর করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা অবস্থান ধর্মঘট পালন করছি এবং দাবি হচ্ছে মাহবুবকে এখান থেকে অপসারণ করতে হবে। তাকে না সরানো পর্যন্ত অবস্থান ধর্মঘট চলবে।’

এ বিষয়ে শাহজালাল বিমানবন্দর পরিচালক ক্যাপ্টেন আব্দুল্লাহ ফারুক পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘বিমানবন্দরের ভেতরে কোনো সমস্যা নেই। কাস্টমস কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঝামেলার কারণে তারা আন্দোলন করছেন কাস্টমস কার্যালয়ের সামনে। তবে যতটুকু খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছি, আলোচনার মাধ্যমে সামাধান হয়ে গেছে।’

টিএটি/আইএম

 

রাজধানী: আরও পড়ুন

আরও