যৌতুকের টাকা না পেয়েই স্ত্রীকে হত্যা করে সিরাজ: র‌্যাব

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

যৌতুকের টাকা না পেয়েই স্ত্রীকে হত্যা করে সিরাজ: র‌্যাব

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৮:৩০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০১৮

যৌতুকের টাকা না পেয়েই স্ত্রীকে হত্যা করে সিরাজ: র‌্যাব

নারায়ণঞ্জের রূপগঞ্জে গৃহবধূ খাদিজা আক্তার (২৬)কে হত্যার ঘটনায় তার স্বামী সিরাজ ওরফে পাগলা সিরাজ (৩২)কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১।

খাদিজার মৃত্যুর পর থেকে পলাতক ছিলেন সিরাজ।

র‌্যাবের দাবি এই হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী ও খুনি খাদিজার স্বামী নিজেই।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে রূপগঞ্জের পূর্বাচল ৮নং সেক্টরের ৫নং ওয়ার্ডের সুলপিনা গ্রামের বিশু মিয়ার বাড়ির সামনে থেকে সিরাজকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি বলেন, সিরাজ ৬/৭ বছর আগে খাদিজাকে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে জুঁই নামে ৫ বছরের একটি কন্যা সন্তান আছে। বিয়ের পর থেকেই সিরাজ তার স্ত্রীকে যৌতুকের দাবিতে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছিল। মেয়ের প্রতি এমন নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে সিরাজকে তিন লাখ টাকা যৌতুকও দিয়েছিলেন খাদিজার বাবা আব্দুল হান্নান।

সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, এরপরও বিভিন্ন অজুহাতে আরো দুই লাখ টাকা যৌতুক চেয়ে খাদিজার উপর নির্যাতন চালাতে থাকে সিরাজ। কিন্তু একমাত্র কন্যাশিশুর কথা চিন্তা করে মুখ বুজে সব নির্যাতন সহ্য করতে থাকে খাদিজা।

দেড় বছর আগে ফাতেমা আক্তারের (মামলার এজাহারভুক্ত আরেক আসামি) সঙ্গে গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করে সিরাজ। এই বিয়ে নিয়ে প্রায়ই সিরাজের সাথে ঝগড়া বিবাদ হতো খাদিজা। গত ৩১ অক্টোবর যৌতুকের টাকা না পেয়ে ও দ্বিতীয় স্ত্রীর প্ররোচনায় গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে খাদিজাকে হত্যা করে। পরে ঘরের টিনের চালের সাথে তার লাশ ঝুলিয়ে পালিয়ে যায়। সিরাজের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও জানান র‌্যাব-১ এর সিও।

পিএসএস/এসবি