২০ বছর আগের মেয়াদহীন ওষুধ দিয়ে অস্ত্রোপচার!

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

২০ বছর আগের মেয়াদহীন ওষুধ দিয়ে অস্ত্রোপচার!

পরিবর্তন প্রতিবেদক ১০:০৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৮

২০ বছর আগের মেয়াদহীন ওষুধ দিয়ে অস্ত্রোপচার!

ওষুধের মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০ বছর আগে। কিন্তু, মেয়াদ উত্তীর্ণ সেই ওষুধ দিয়েই দিব্যি চলছে অস্ত্রোপচার। হাসপাতালটির অপারেশন থিয়েটারের অবস্থাও যাচ্ছেতাই।

অবশেষে র‍্যাবের অভিযানে এসব অসংগতি হাতেনাতে ধরা পড়ায় ১০ লাখ টাকা জরিমানা দিয়ে পার পেল পান্থপথের বাংলাদেশ স্পাইন অ্যান্ড অর্থোপেডিক জেনারেল হাসপাতাল।

বৃহস্পতিবার বিকেলে পান্থপথের এই হাসপাতালে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে র‌্যাব-২ ও ওষুধ প্রশাসনের কর্মকর্তারা এতে অংশ নেন।

অভিযান শেষে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান, ১৯৯৮ সালে মেয়াদ শেষ হওয়া ওষুধ দিয়ে অস্ত্রোপচার করা হতো হাসপাতালটিতে। অপারেশন থিয়েটারেও দেখা গেছে নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ।

তিনি আরো বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানটির অপারেশন থিয়েটারে ছিল পুরাতন সব ওষুধ, মেয়াদ উত্তীর্ণ স্যালাইনের পাইপ, বিভিন্ন রকম অপারেশনের নিডিল, যার সবই মেয়াদহীন ও ময়লায় ভরা।’

সারওয়ার আলম বলেন, এছাড়া বেশকিছু ওষুধ ছিল যার মেয়াদ নেই। এসব অভিযোগে হাসপাতালটিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। রোগীদের কথা বিবেচনা করে হাসপাতালটি সিলগালা করা হয়নি।

তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠানটি মানুষের জীবন নিয়ে খেলা করেছে। হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে জমেছে মাকড়শা জাল, বেডে ধুলাবালি জমে আছে। কোনো মেশিন কাজ করে না। কোনো পরীক্ষা না করেই রিপোর্ট দেয়া হতো। সেখানে আগে থেকে প্রস্তুত করা বেশকিছু ডাক্তারের সিলযুক্ত কাগজও পাওয়া গেছে।

পিএসএস/আইএম