ছেলের হাতুড়ির আঘাতে প্রাণ গেল মার

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫

ছেলের হাতুড়ির আঘাতে প্রাণ গেল মার

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৪:৪৭ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৩, ২০১৮

ছেলের হাতুড়ির আঘাতে প্রাণ গেল মার

রাজধানীর ভাটারা থানাধীন কুড়িল এলাকায় মাদকাসক্ত ছেলের হাতুরির আঘাতে মা সালমা আখতার (৬৫) নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে পরিবর্তন ডটকমকে জানিয়েছেন হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া।

ভাটারার উপ পরিদর্শক মো. আলী হাসান পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, দুপুর ১২ টা থেকে ১ টার মধ্যে যে কোন সময় সালমাকে মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যায় তার মাদকাসক্ত ছেলে শিপন মিয়া (৩৪)।

তিনি বলেন, রক্তাক্ত অবস্থায় সালমাকে ঢাকা মেডিকেলে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে আছে। ওই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘাতক শিপনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সালমার নিকটাত্মীয় ওসমান গণি পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, শিপন মাদকাসক্ত ছিল। কুড়িলের ওই বাসায় শিপনের মা সালমা ও আরেক ভাই আলামিন থাকতো। শিপন মাদক মামলায় ২ বছর জেল খেটে গত ৫ মার্চ মুক্ত হয়ে বাসায় আসে। পরে ৩ জন একসাথেই থাকতো।

ঘটনার সময় আলামিন বাসায় ছিলনা। বিকালে সে বাসায় গিয়ে দেখতে পায়, মায়ের রক্তাক্ত দেহ। পরে পুলিশে খবর দিলে তারা লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে রক্তমাখা হাতুড়ি পরে ছিল।

এর আগে গত ৫/৬ বছর আগে শিপনের বিয়ে হয়। সে তার স্ত্রীকে কুপিয়ে আহত করায় তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। নিহত সালমার স্বামীর নাম মৃত শফিউদ্দিন মিয়া। তাদের গ্রামের বাড়ি নারায়নগঞ্জের রুপগঞ্জ থানার ভোলানাথপুরে।

পিএসএস/এমআর