খাম বানানোর টাকায় বোনদের উপহার পাঠাতেন সঞ্জয় দত্ত

ঢাকা, রবিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২০ | ৬ মাঘ ১৪২৬

খাম বানানোর টাকায় বোনদের উপহার পাঠাতেন সঞ্জয় দত্ত

পরিবর্তন ডেস্ক ২:২০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯

খাম বানানোর টাকায় বোনদের উপহার পাঠাতেন সঞ্জয় দত্ত

সঞ্জয় দত্তের জীবন সত্যিকারের সিনেমার মতোই ঘটনা বহুল। সবচেয়ে বিলাসবহুল জীবন যেমন দেখেছেন আবার অকল্পনীয় অবস্থার মধ্যে দিয়েও যেতে হয়েছে তাকে। তেমনই একটা সময় ছিল যখন তিনি সংশোধানাগারে কয়েকটি বছর কাটিয়েছেন। সে সময় সঞ্জয় আর পাঁচজনের মতোই নানা ধরনের কাজ করেছেন। সেই সময়ে খাম, ঠোঙা, কাগজের ব্যাগ বানিয়ে সেই টাকায় বোনদের তিনি রাখি উপহার পাঠাতেন।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সঞ্জয় দত্তকে সংশোধনাগারে থাকতে হয়েছে সাধারণ অপরাধীর মতো। সেখানে সবাইকে নিয়মিত নানা ধরনের কাজ করতে হয়।

প্রথমত, এই ধরনের কাজ তাদের কাউন্সেলিংয়ের সাহায্য করে। দ্বিতীয়ত, শাস্তির মেয়াদ কমাতেও সাহায্য করে। পাশাপাশি কাজগুলো করে সামান্য কিছু পারিশ্রমিক পান, যা তারা বাড়িতে পাঠাতে পারেন বা সংশোধনাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর তাদের হাতে দেওয়া হয়।

সম্প্রতি  টেলিভিশনের জনপ্রিয় ‘দ্য কপিল শর্মা শো’ অনুষ্ঠানে আসেন সঞ্জয়। অনুষ্ঠানের উপস্থাপক কপিল তাকে প্রশ্ন করেন, ‘সঞ্জু’  ছবিতে যে দেখা যায় রনবীর কাপুর জেলে বসে খাম তৈরি করছেন, এটা কি সত্যিই তার জীবনে ঘটেছিল?

এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘এই সব কাজ শিখতে আমার অনেক দিন সময় লেগেছিল।  আসলে জেলে প্রত্যেককেই কিছু না কিছু করতে হয়। কোনও অজুহাত চলে না। জেলের টার্ম যদি একটু কমে তার জন্যেও আমরা কাজ করতাম। একটা খাম বানাতে পারলে ১০ পয়সা করে পাওয়া যেত।’

এর পরে কপিল তাকে প্রশ্ন করেন, অল্প যা টাকা পেতেন কাজটি করে, সেই টাকা দিয়ে কী করতেন?

সঞ্জয় এর উত্তরে বলেন, সেই টাকা দিয়ে তিনি রাখি উৎসবের সময় বোনেদের উপহার পাঠাতেন। নিঃসন্দেহে একটি মর্মস্পর্শী ঘটনা।  অনুষ্ঠানের এই পর্বটি সম্প্রচার হবে সনি টিভিতে।

এসকে

 

বলিউড ও অন্যান্য: আরও পড়ুন

আরও