অভাবে চিত্র পরিচালক এখন প্রহরী!

ঢাকা, ২৪ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

অভাবে চিত্র পরিচালক এখন প্রহরী!

পরিবর্তন ডেস্ক ১:১৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৩, ২০১৯

অভাবে চিত্র পরিচালক এখন প্রহরী!

একেই বলে বুঝি নিয়তির পরিহাস! যে অন্ধকারের জীবনকে রূপালি পর্দায় তুলে সমাজকে সচেতন করেতে চেয়েছেন, সেটিই আজ পেশা হয়ে গেছে।

অন্যের বাসার সামনে ১২ ঘণ্টা ঠাঁই কাটছে। তা থেকে যা পাচ্ছেন, তাই দিয়ে চলছে স্ত্রী-কন্যাকে নিয়ে সংসার। অভাবই তাকে বাঁচার লড়াইয়ে চিত্র পরিচালক থেকে বানিয়েছে বাসার প্রহরী।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, ৬২ বছরের সুব্রতরঞ্জন দত্ত টলিউডের পরিচিত মুখ। প্রখ্যাত চিত্র পরিচালক ঋত্বিক ঘটকের কাছে ‘যুক্তি তক্কো আর গপ্পো’ ছবিতে শিক্ষানবিশ হিসেবে কাজ করেছেন। আশির দশকে বহু ছবিতে সহকারী পরিচালকও ছিলেন।

এমনকি মুম্বাইয়ে শশধর মুখোপাধ্যায়ের প্রোডাকশন হাউসে কাজ করেছেন সুব্রতরঞ্জন। কিন্তু, এখন তিনি মাত্র সাড়ে ছ’হাজার টাকায় নিরাপত্তাকর্মীর চাকরি করছেন।

অথচ জনজাতিদের জীবনযাত্রা নিয়ে সুব্রত তৈরি করেন ‘প্রবাহিণী’ নামে চলচ্চিত্র। ২০১৬ সালে এই ছবি মুক্তি পায়। এরপর শিশি-বোতল কুড়ানো মেয়েদের জীবন নিয়ে ‘কলি’ নির্মাণ করলেও তা মুক্তি পায়নি।

এ বিষয়ে সুব্রত বলেন, ‘স্ত্রী-মেয়েকে নিয়ে সংসার। চলতে তো হবে। বেশ কয়েক বছর বসে রয়েছি। শেষমেষ এই কাজেই ঢুকে গেলাম। কোনো কাজই ছোট নয়।’

ভিআইপি রোডের একটি বাসায় ১২ ঘণ্টার নিরাপত্তারক্ষীর কাজ করেন সুব্রত। এরপরও সময় পেলেই নতুন চিত্রনাট্যের খসড়া তৈরি করার চেষ্টা করেন।

সুব্রত আরও বলেন, ‘জীবন সিনেমার চিত্রনাট্যের মতোই গতিশীল। ভাল কাজের সুযোগ নিশ্চয়ই পাব। চেষ্টা তো চালাতেই হবে।’

আইএম

 

বলিউড ও অন্যান্য: আরও পড়ুন

আরও