‘অঙ্গুরি ভাবী’র ছবির অ্যালবাম

ঢাকা, ২৩ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

‘অঙ্গুরি ভাবী’র ছবির অ্যালবাম

পরিবর্তন ডেস্ক: ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ, জুন ১২, ২০১৯

‘অঙ্গুরি ভাবী’র ছবির অ্যালবাম

শাড়ি, টিপ, মঙ্গলসূত্র, ঘোমটা— সনাতনী সাজেই শিল্পা শিন্ডেকে দেখতে অভ্যস্ত টেলিভিশন দর্শক। ২০০২ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত ‘ভাবি’ এবং পরবর্তী ক্ষেত্রে ‘ভাবিজি ঘর পর হ্যায়’— শিল্পাকে জনপ্রিয় করেছে।

 

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, ভারতে জন্ম শিল্পার। চার ভাই-বোনের মধ্যে তৃতীয় তিনি। স্কুলের পড়াশোনা শেষে মুম্বাইয়ের কলেজে সাইকোলজি নিয়ে পড়তে শুরু করেন। কিন্তু স্নাতক পড়া হয়নি। হাইকোর্টের বিচারক বাবা মেয়েকে আইন পড়াতে চেয়েছিলেন। মেয়ের আবার ওই বিষয়ে কোনও আগ্রহ ছিল না।

বাবা শিল্পার অভিনয় করাকে অপছন্দ করতেন। তবুও লড়াই করে ক্যারিয়ার শুরু করেন। বাবা মেনে নিতে শুরু করেন মেয়েকে। কিন্তু ২০১৩-এ অ্যালঝাইমার্সে বাবার মৃত্যু পর ডিপ্রেশনে চলে গিয়েছিলেন শিল্পা।

সহ-অভিনেতা রোমিত রাজের সঙ্গে ডেট করতেন শিল্পা। ২০০৯-এ তাদের বিয়েও প্রায় ঠিক হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু কোনও অজ্ঞাত কারণে শেষ মুহূর্তে সে বিয়ে ভেঙে যায়। বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাদের।

ইন্ডাস্ট্রিতে শিল্পার ইমেজ তার চরিত্রের মতোই। ‘কাভি আয়ে না জুদাই’, ‘সঞ্জীবনী’, ‘আম্রপালি’র মতো জনপ্রিয় ধারাবাহিকে তার অভিনয় দেখেছেন দর্শক।

টিভি ধারাবাহিকের পাশাপাশি দু’টি তেলুগু ছবিতেও অভিনয় করেছেন শিল্পা। নারায়ণ রাওয়ের ‘চিন্না’ এবং সুরেশ বর্মার ‘শিবাণী’ ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল তাকে। কিন্তু পর্দার বাইরে বার বার বিতর্কে জড়িয়েছেন শিল্পা।

২০১৬-র মার্চ নাগাদ কমেডি সিরিয়ালের নির্মাতাদের বিরুদ্ধেই মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে শো ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন শিল্পা। আইনি নোটিস পাঠান। পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগ করেন। যদিও শোয়ের নির্মাতাদের অভিযোগ ছিল, অন্য একটি চ্যানেলে যোগ দেওয়ার জন্যই ওই শো ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যেই নানা মিথ্যা অভিযোগ করেছিলেন অভিনেত্রী।

ঠিক এক বছর পর ‘ভাবি জি ঘর পর হ্যায়’র প্রযোজক সঞ্জয় কোহালির বিরুদ্ধে মুম্বাইয়ের ওয়ালিভ থানায় যৌন নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করেন ‘ভাবি জি ঘর পর হ্যায়’র ‘অঙ্গুরি দেবী’ ওরফে শিল্পা।

২০১৭ শিল্পার জীবনে নতুন মোড় এনে দিল। তিনি ‘বিগ বস’-এর প্রতিযোগী হিসেবে লড়াই শুরু করেন। সেই সিজন অর্থাৎ ‘বিগ বস ১১’-এর বিজয়ী হন। তবে ‘বিগ বস’ হাউজে থাকাকালীন একাধিক বার অন্যান্য প্রতিযোগীদের সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়েছেন। তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও অন ক্যামেরা খোলামেলা আলোচনা হয়েছিল সে সময়।

‘বিগ বস’ হাউজে শিল্পার সঙ্গে শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে টিকে ছিলেন হিনা খান। শিল্পা-হিনার ঝগড়া ‘বিগ বস’-এর মূল আকর্ষণ ছিল। শো শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও তাদের মধ্যে সোশ্যাল ওয়ালে দীর্ঘদিন ঝগড়া চলেছে।

২০১৯-এর ফেব্রুয়ারিতে কংগ্রেসে যোগ দেন শিল্পা। অভিনেত্রী সত্তার পাশাপাশি শুরু হয় তার রাজনৈতিক জীবন। তবে নতুন সিদ্ধান্তের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রলড হতে হয়েছিল তাকে।

অভিনয় হোক বা রাজনীতি’ নিজের শর্তে জীবন বাঁচতে ভালবাসেন শিল্পা। বিতর্ককে জীবনের অঙ্গ হিসেবেই মনে করেন। তাই থেমে না থেকে এগিয়ে যাওয়াই তার জীবনের মন্ত্র।

জিজাক/

 

বলিউড ও অন্যান্য: আরও পড়ুন

আরও