শোকসভায় গিয়ে হেসে ট্রল হলেন অভিষেক

ঢাকা, সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮ | ৫ ভাদ্র ১৪২৫

শোকসভায় গিয়ে হেসে ট্রল হলেন অভিষেক

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:০৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৯, ২০১৮

শোকসভায় গিয়ে হেসে ট্রল হলেন অভিষেক

রোববার রাতে প্রয়াত হয়েছেন ব্যবসায়ী রঞ্জন নন্দা। সম্পর্কে তিনি শ্বেতা বচ্চন নন্দার শ্বশুর। রঞ্জনের প্রয়াণের খবরে বুলগেরিয়া থেকে শুটিং বাতিল করে তড়িঘড়ি ভারতে ফিরে এসেছিলেন অমিতাভ। ৭ আগস্ট রঞ্জনের শোকসভায় উপস্থিত ছিলেন বচ্চন পরিবারের সকলেই। সেখানেই ট্রল হতে হল অভিষেক বচ্চনকে।

আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, অমিতাভ, জয়া, অভিষেক, ঐশ্বরিয়া, রঞ্জনের পুত্র নিখিল নন্দা, পুত্রবধূ শ্বেতা ছাড়াও বলিউড মহলের একাধিক তারকা উপস্থিত ছিলেন। সেই অনুষ্ঠানেই অভিষেকের একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। যেখানে হাসতে দেখা গেছে অভিনেতাকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবি ছড়িয়ে পড়তেই ট্রল হতে হয় তাকে।

কেউ লিখেছেন, ‘এটা কি কোনও পার্টি না শোকসভা?’ কারও মত, ‘দেখে তো মনে হচ্ছে হাইস্কুলের রিইউনিয়ন।’ যদিও এই ট্রলিংয়ের জবাবে এখনও পর্যন্ত প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি অভিষেক।

রঞ্জন ছিলেন রাজ কাপুরের জামাই। ঋষি কাপুরের বোন ঋতু নন্দার স্বামী। তার প্রয়াণের খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রথম জানিয়েছিলেন ঋষি কাপুরের মেয়ে ঋদ্ধিমা কাপুর সাইনি। তার শোকসভায় কাপুর পরিবারের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু অভিষেকের মতো কাউকেই ট্রলড হতে হয়নি।

তবে তারকাদের ট্রলড হওয়া এই প্রথম নয়। বিকিনি পরার জন্য দীপিকা পাড়ুকোন, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, সোনম কাপুর, ফাতিমা সানা শেখের মতো তারকাদের ট্রলড হতে হয়েছে। কখনও বা গায়ের রঙ নিয়ে ট্রলিংয়ের শিকার হয়েছেন তারকারা। কখনও আবার সাফল্যের জন্য ট্রল হয়েছেন সুহানা খানের মতো স্টার কিডরা। ফলে ট্রলিং কোনও নতুন ঘটনা নয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলের মত প্রকাশের স্বাধীনতা রয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, সে কারণেই কি যে কোনও সময় রূপালি দুনিয়ার মানুষদের টার্গেট করা সঙ্গত?

ভিডিও লিংক

জিজাক/