সুপারি চুরির অভিযোগে গলায় শিকল বেঁধে শিশু নির্যাতন

ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

সুপারি চুরির অভিযোগে গলায় শিকল বেঁধে শিশু নির্যাতন

অচিন্ত্য মজুমদার, ভোলা ৬:৪৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০১৯

সুপারি চুরির অভিযোগে গলায় শিকল বেঁধে শিশু নির্যাতন

ভোলায় সুপারি চুরির অপরাধে গলায় শিকল বেঁধে তালা দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় আলাউদ্দিন (১৪) নামে এক শিশুকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল বুধবার বিকেলে ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নে ১ নম্বর ওয়ার্ড চর আনন্দ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে পুলিশ রাত ১১টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে ওই শিশুকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে আসে।

স্থানীয়রা জানায়, ওই এলাকার মোসলেহ উদ্দিনের বাগান থেকে দুই ছড়া সুপারি চুরির দায়ে আলাউদ্দিনকে আটক করা হয়। এরপর মোসলেহ উদ্দিনের ছেলে ও স্থানীয় কয়েকজন মিলে একটি নির্মাণাধীন ভবনের পিলারের সঙ্গে গলায় শিকল পরিয়ে আলাউদ্দিনকে নির্যাতন চালায়। আলাউদ্দিনের চিৎকার শুনতে পেয়ে এলাকাবাসী বিষয়টি পুলিশকে জানায়।

খবর পেয়ে রাত ১১টার দিকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই শিশুকে উদ্ধার করে। এ সময় পুলিশ আসতে দেখে নির্যাতনকারীরা পালিয়ে যায়।

ইলিশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই রতন কুমার শীল পরিবর্তন ডটকমকে জানান, চর আনন্দ পার্ট-৩ গ্রামের আব্দুল আলী কেরানী বাড়িতে দুই ছড়া সুপারি চুরি করায় শিশুকে বেঁধে নির্যাতনের খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল থেকে আলাউদ্দিনকে উদ্ধার করি। এ সময় নির্যাতনকারীদের না পেয়ে ওই বাড়ির গৃহকর্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে আসা হয়। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে ভোলা পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার জানান, এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। মামলা হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এইচআর

 

বরিশাল: আরও পড়ুন

আরও