কলেজে যাওয়ার পথে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী ও গণধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা

ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

কলেজে যাওয়ার পথে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী ও গণধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা

ব‌রিশাল প্রতিনিধি ৬:৩০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৫, ২০১৯

কলেজে যাওয়ার পথে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী ও গণধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা

বরিশালের মুলাদীতে কলেজে যাওয়ার পথে এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী ও গণধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।  এই ঘটনায় ছয় জনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রোববার  বিষয়টি নিশ্চিত করে মুলাদী থানার অফিসার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল আহসান জানান, শনিবার (২৪ আগস্ট) দিবাগত রাতে মুলাদী সৈয়দ বদরুল হোসেন ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের এক ছাত্রী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। 

মামলার অভিযুক্ত আসামিরা হলেন- শফিপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা আজিজুল সরদার, সাগর, সালাউদ্দিন, রাজিব, ফয়সাল ও কাওছার হোসেন। এরা শফিপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ বালিয়াতলী ও বোর্জমহন গ্রামের বাসিন্দা। এদের কাউকে পুলিশ এখনো আটক করতে পারেনি।

মুলাদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আউয়াল মামলার বরাত দিয়ে বলেন, শনিবার সকাল ৯টার দিকে কলেজ ছাত্রী নিজের বাড়ি থেকে কলেজের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। কলেজে যেতে হলে স্থানীয় শফিপুর খেয়াঘাটে ট্রলার পার হয়ে যেতে হয়। কিন্তু কলেজ ছাত্রী শফিপুর খেয়াঘাটে পৌঁছানোর আগেই ট্রলার ছেড়ে দেয়। এসময় ঘাটে অবস্থানরত আজিজুল সরদার, সাগর ও সালাউদ্দিন কলেজ ছাত্রীকে তাদের সাথে নিয়ে যায়। পথিমধ্যে বোর্জমহন এলাকায় পৌঁছে আজিজুল তার নানুর সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়ার কথা বলে নানা বাড়ির পরিত্যাক্ত ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে আজিজুল, সাগর, সালাউদ্দিন, রাজিব, ফয়সাল ও কাওসার মিলে তাকে গণধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় কলেজ ছাত্রী ডাক চিকিৎকার দিলে স্থানীয়রা ছুটে আসে। তখন বখাটেরা ঘটনাস্থল হতে দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে কলেজ ছাত্রী বাড়ি ফিরে তার পরিবারকে ঘটনাটি অবহিত করেন।

এইচকে/

 

বরিশাল: আরও পড়ুন

আরও