পরকীয়া প্রে‌মি‌কের সা‌থে ঘুর‌তে গিয়ে গণধর্ষ‌ণের শিকার গৃহবধূ

ঢাকা, শনিবার, ৯ নভেম্বর ২০১৯ | ২৪ কার্তিক ১৪২৬

পরকীয়া প্রে‌মি‌কের সা‌থে ঘুর‌তে গিয়ে গণধর্ষ‌ণের শিকার গৃহবধূ

বরিশাল ব্যু‌রো ১:২৪ অপরাহ্ণ, জুন ০৮, ২০১৯

পরকীয়া প্রে‌মি‌কের সা‌থে ঘুর‌তে গিয়ে গণধর্ষ‌ণের শিকার গৃহবধূ

বরিশালের হিজলায় পরকীয়া প্রেমিককে মারধর করে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার বিকালে উপজেলার একতা বাজার এলাকার সাহাবুদ্দিন চৌধুরী পাড়ায় তারা ঘুরতে গেলে এই ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে সন্ধ্যায় হিজলা থানা পুলিশ ওই গৃহবধূ ও তার পরকীয়া প্রেমিককে উদ্ধার করে। পাশাপাশি ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে মামুন নামের এক কিশোরকে আটক করে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন হিজলা থানা পুলিশের ওসি মাসুদুর রহমান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আনুমানিক ২৫ বছর বয়সের ওই গৃহবধূর বাড়ি হিজলা উপজেলার পার্শ্ববর্তী দ্বীপ উপজেলা মেহেন্দিগঞ্জের ধুলিয়ার মধ্য চর গ্রামে। শুক্রবার দুপুরে সে তার পরকীয়া প্রেমিক বরগুনার আমতলী উপজেলার মৌপাড়া এলাকার ছোটবগি গ্রামের আজাহার আলী’র ছেলে অটোরিকশা চালক জাকির হোসেন গোলন্দাজের সাথে হিজলা’র সাহাবুদ্দিন চৌধুরী পাড়ায় ঘুরতে যায়।

সেখানে তাদের আচার আচরণ দেখে সন্দেহ হয় স্থানীয় একদল বখাটের। তারা পরকীয়ার বিষয়টি বুঝতে পারে এবং পরকীয়া প্রেমিক জাকির হোসেন গোলন্দাজকে মারধর করে। পরে গৃহবধূকে একই এলাকার একটি বাগানে নিয়ে দলবদ্ধভাবে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

হিজলা থানার ওসি মাসুদুর রহমান বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে ঘটনাটি জানতে পেরে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মঈনুদ্দিন আহমেদসহ পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই গৃহবধূ ও তার সাথে থাকা যুবককে উদ্ধার করে। পাশাপাশি ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে মামুন নামের এক কিশোরকে আটক করে।

ওসি বলেন, গৃহবধূকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। সে জানিয়েছে ৪/৫ জন মিলে তাকে জোর করে ধর্ষণ করেছে। তবে মামুন নামে যাকে আটক করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে সরাসরি ধর্ষণের অভিযোগ না থাকলেও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগ রয়েছে। তাছাড়া মামুনের মাধ্যমে পলাতকদের নাম-পরিচয় জানা গেছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মাসুদুর রহমান আরো বলেন, গৃহবধূ তার স্বামীর সাথে ঢাকায় থাকেন। আর জাকির গোলন্দাজ বরিশালে অটোটেম্পু চালায়। ঈদের ছুটিতে বাবা বাড়িতে বেড়াতে আসে গৃহবধূ। যদিও তারা দুইজনই দাবি করেছেন তাদের মধ্যে কোন পরকীয়ার সম্পর্ক নেই। মেহেন্দিগঞ্জের উলানিয়া খেয়াঘাটে তাদের পরিচয় হয়। সেই পরিচয়ের সূত্র ধরে তারা দু’জন একসাথে যাচ্ছিলো। পথে বখাটেরা জাকিরকে মারধর ও গৃহবধূকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে।

তবে পুরো বিষয়টি ভালোভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনার সাথে জাকির গোলন্দাজের কোন সম্পৃক্ততা রয়েছে কিনা সে বিষয়েও আমরা জানার চেষ্টা করছি। পাশাপাশি ওই ঘটনায় ভিকটিম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে। শনিবার শারীরিক পরীক্ষার জন্য তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হবে বলেও জানান ওসি।

পিএসএস

 

 

বরিশাল: আরও পড়ুন

আরও