ছাত্রলীগকর্মী হত্যা মামলার আসামির হাত-পা কাটা মরদেহ উদ্ধার

ঢাকা, শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯ | ১৩ বৈশাখ ১৪২৬

ছাত্রলীগকর্মী হত্যা মামলার আসামির হাত-পা কাটা মরদেহ উদ্ধার

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ৭:০৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০১৯

ছাত্রলীগকর্মী হত্যা মামলার আসামির হাত-পা কাটা মরদেহ উদ্ধার

ঝালকাঠির নলছিটিতে ছাত্রলীগকর্মী সজল হাওলাদার হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাইদুল ইসলাম তালুকদারের (৩০) হাত-পা কাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার বিকেলে উপজেলার নাচনমহল বাজার সংলগ্ন এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

সাইদুলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে মরদেহ ফেলে রাখা হয়েছে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশ জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোল্লারহাট ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেনকে আটক করেছে। 

২০১৬ সালের ৩ জুলাই বরিশাল বিএম কলেজের ছাত্র ও মোল্লারহাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগকর্মী সজল হাওলাদার (১৮)কে গুলি করে হত্যা করা হয়। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে বিরোধের জেরে তাকে হত্যা করা হয়েছিল।

পুলিশ জানায়, শনিবার বিকেলে নাচনমহল বাজারের দক্ষিণ পাশে সাইদুলের হাত-পা কাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পুলিশ গিয়ে বিকেল সাড়ে চারটায় মরদেহ উদ্ধার করে।

সাইদুল ইসলাম তালুকদার নাচনমহল গ্রামের আবদুল আজিজ তালুকদারের ছেলে।

সজল হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে জেলহাজতে ছিল সাইদুল। জামিনে মুক্তি পেয়ে তিনি সম্প্রতি এলাকায় ফিরে আসেন।

সাইদুলের বাড় বোন আকলিমা বেগম বলেন, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমার ভাই মোল্লারহাট ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেনের সঙ্গে ছিল। এ কারণেই সজল হত্যা মামলায় আসামি করা হয়েছে। বর্তমানে চেয়ারম্যান কবিরের সঙ্গে তার বিরোধ দেখা দেয়। কবিরের লোকজনই আমার ভাইকে হত্যা করেছে।

নলছিটি থানার ওসি (তদন্ত) আবদুল হালিম তালুকদার বলেন, সাইদুল হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোল্লারহাট ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেনকে আটক করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসবি