পাঁচবারের সংসদ সদস্য শম্ভুকে মন্ত্রী হিসেবে চায় বরগুনাবাসী

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯ | ১১ চৈত্র ১৪২৫

পাঁচবারের সংসদ সদস্য শম্ভুকে মন্ত্রী হিসেবে চায় বরগুনাবাসী

বরগুনা প্রতিনিধি ১২:০৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৫, ২০১৯

পাঁচবারের সংসদ সদস্য শম্ভুকে মন্ত্রী হিসেবে চায় বরগুনাবাসী

বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বরগুনা-০১ (বরগুনা সদর-আমতলী-তালতলী) আসন থেকে ৫ম বারের মতো নির্বাচিত সংসদ সদস্য অ্যাড. ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুকে মন্ত্রী পরিষদের সদস্য হিসাবে দেখতে চায় বরগুনাবাসী।

বরগুনাসহ দেশের দক্ষিণ অঞ্চলের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুকে মন্ত্রী পরিষদের অন্তর্ভূক্তির বিষয়টি বিবেচনা করবেন এমনটাই প্রত্যাশা বরগুনাবাসীর।

ছাত্রজীবন থেকে আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত অ্যাড. ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু টানা ৪০ বছরেরও বেশি সময় ধরে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত রয়েছেন। ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্যও। ২৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে রয়েছেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্বে।

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে পাঁচ বার (১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮) সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন বিপুল জনসমর্থন নিয়ে। ১৯৯৬ সালে সাংসদ নির্বাচিত হয়ে প্রথমে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী পরে খাদ্য উপমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেছিলেন তিনি।

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৫ম বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় বুধবার রাতে বরগুনা প্রেসক্লাবে অভিজ্ঞ এই রাজনীতিবিদকে দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নের চাকা সচল রাখতে আগামী মন্ত্রী পরিষদে অন্তর্ভূক্তির দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন সর্বস্তরের পেশাজীবীরা।

বরগুনা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. আব্দুর রহমান নান্টু বলেন, আমাদের সকল দাবি-আবদার মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছেই এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের মনের কথা অবশ্যই উপলব্ধি করে ব্যবস্থা নিবেন বলে আমরা আশা করি।

সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আ. রশিদ মিয়া বলেন, একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসাবে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অবশ্যই আমার আস্থা রয়েছে তিনি মন্ত্রী পরিষদে দক্ষিন অঞ্চল থেকে যাদেরকে মনোনীত করবেন তাদের মধ্যে তার বিশ্বস্ত ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু থাকবেন।

বরগুনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক ইত্তেফাক বরগুনা প্রতিনিধি প্রবীন সাংবাদিক আব্দুল আলিম হিমু বলেন, প্রধানমন্ত্রী নিকট আমাদের দক্ষিণাঞ্চালের গণমাধ্যম কর্মীদের পক্ষ থেকে অনুরোধ থাকবে অবহেলিত এই এলাকার যোগাযোগ ও পর্যটন উন্নয়নের স্বার্থে ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুকে মন্ত্রী পরিষদে অন্তর্ভূক্ত করবেন।

এ বিষয়ে বরগুনা জেলা পাবলিক পলিসি ফোরামের আহ্বায়ক মো. হাসানুর রহমান ঝন্টু বলেন, সাংসদ শম্ভু একজন জাতীয় নেতা। তার হাত ধরেই অবহেলীত বরগুনার বিভিন্ন উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। তিনি যখন উপমন্ত্রী ছিলেন তখন বরগুনার অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছিলো। সেই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে দ্বিতীয় টুঙ্গিপাড়াখ্যাত বরগুনা থেকে এবার মন্ত্রী পরিষদে সাংসদ শম্ভুকে অন্তর্ভূক্তি করে বরগুনার মাটি ও মানুষের আশা আকাঙ্খার ওপর আস্থা রাখবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আমতলী পৌর মেয়র ও আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান বলেন, আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সম্মান ও মর্যাদা রক্ষার জন্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুকে সংসদ সদস্য হিসাবে তাকে উপহার দিয়েছি। যেহেতু এই আমতলী থেকেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ২০০১ সালে সংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন তাই এই এলকার উন্নয়নে ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুকে মন্ত্রী পরিষদের সদস্য করার বিষয়টি তিনি বিবেচনা করবেন।

বরগুনা সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্বাস হোসেন মন্টু বলেন, ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভাজন কর্মীর প্রমাণ দিয়েছেন। যুক্তিসংগত কারণেই বরগুনা সকল স্তরের নাগরিকরা ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত বরগুনার বুড়িশ্বর (পায়রা) নদীর ব্রিজ, বিষখালী নদীর ব্রিজ, তালতলীতে তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র এবং বরগুনা জেলাকে পর্যটন জেলা হিসাবে গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেন।

এসএস/এআরই