খেলাপি ঋণ ও সুদ হার কমাতে উচ্চ পর্যায়ের কমিঠি গঠন

ঢাকা, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খেলাপি ঋণ ও সুদ হার কমাতে উচ্চ পর্যায়ের কমিঠি গঠন

পরিবর্তন প্রতিবেদক ১১:১৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০১, ২০১৯

খেলাপি ঋণ ও সুদ হার কমাতে উচ্চ পর্যায়ের কমিঠি গঠন

উৎপাদনশীল খাতের ব্যাংক ঋণের সুদহার এক অংকে নামিয়ে আনা এবং খেলাপি ঋণ কমাতে কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কমিটির সভাপতি করা হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গর্ভনর এস.এম. মনিরুরুজ্জামানকে।

রোববার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম ফোনে এ তথ্য জানিয়েছেন।

 

 

৭ সদস্য এই বিশিষ্ট কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. জায়েদ বখত, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের চেয়ারম্যান কাজী আকরাম হোসেন, রুপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ, মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মাহাবুবুর রহমান, আইএফআইসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ আলম সরওয়ার ও এনআরবি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মেহমুদ হোসেন।

বার বার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পরও খেলাপি ঋণ নাগালহীন ভাবে বেড়েছে। ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীরাও বৈঠক করে অর্থমন্ত্রীকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল জুন মাস থেকে খেলাপি ঋণ কমে যাবে। কিন্তু তারপরও বেড়েছে খেলাপি ঋণের পরিমান। একই ভাবে ব্যাংক ঋণের সুদ হার কোনভাবেই এক অংকের ঘরে আনা যায়নি। ব্যাংক ঋণের সুদ হার নামিয়ে আনতে প্রধান মন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী ও বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনরের কাছে প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসে ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা। কিন্তু বাস্তবে সুদ হার কোনোভাবেই এক অংকের ঘরে নামানো সম্ভব হয়নি।

রোববার সকল বাণিজ্যিক ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের নিয়ে বৈঠকে বসে অর্থমন্ত্রী। বৈঠকে খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনা ও  ব্যাংক ঋণের সুদ হার এক অংকের ঘরে নামিয়ে আনতে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ ব্যাপারে অবহিত করা হয়।

এর চার ঘণ্টার মধ্যেই কমিটির সদস্যদের নাম গণমাধ্যমকে জানিয়ে দেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম।

কমিটি আগামী ৭ দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবে। কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ১ জানুয়ারি থেকে শিল্পখাতের সুদহার হ্রাস এবং খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনার কার্যক্রম শুরু হবে।

এআরই

 

ব্যাংক ও বীমা: আরও পড়ুন

আরও