এনআরবি ব্যাংকের টাকা আত্মসাত: ১৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ঢাকা, ৩১ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

এনআরবি ব্যাংকের টাকা আত্মসাত: ১৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:১০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০১৯

এনআরবি ব্যাংকের টাকা আত্মসাত: ১৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

এনআরবি ব্যাংকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীসহ ১৪ জনকে আসামি করে তিনটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বুধবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল হক বাদী হয়ে এই তিনটি মামলা দায়ের করেন।

মামলাগুলোর মধ্যে ৫ কোটি ৪৩ লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় দায়ের করা মমলায় ৬ জনকে আসামি করা হয়।

তারা হলেন— আল-ফাহাদ টিকেটিং অ্যান্ড মেডিক্যাল ট্যুরিজম লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাকিব হাসান হায়দার, পরিচালক ফারজানা লাবনী, এনআরবি ব্যাংক করপোরেট হেড অফিসের সাবেক প্রিন্সিপাল অফিসার মো. সোহানুর রহমান (বর্তমান কর্মস্থল ব্র্যাক ব্যাংক), এনআরবি ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াহিদ বিন আহমেদ, হেড অব ক্রেডিট রিস্ক ম্যানেজমেন্ট মাহবুবুজ্জামান ও জিওলোজাইজসার্ভে করপোরেশনের প্রোপাইটর অ্যান্ড চিফ সার্ভেয়ার মো. মিজানুর রহমান কনক।

২০১৫ সালের ৬ মে থেকে চলতি বছরের ৩১ মে পর্যন্ত সময়ে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

৫৮ কোটি ২২ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলা হয় ৬ জনের নামে।

তারা হলেন— এবি ব্যাংক পাহাড়তলী শাখার সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড রিলেশনশিপ ম্যানেজার মহিউল আলী আজমী, ম্যাপস স্টিল করপোরেশন লিমিটেডের চেয়ারম্যান, নুর উদ্দিন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর চৌধুরী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফাতেমা বেগম মিলি, নির্বাহী পরিচালক মো. হামিদুরর হমান, অর্থ পরিচালক মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান ও টেকনিক্যাল পরিচালক মো. কামাল উদ্দিন।

২০১২ সালের ২ আগস্ট থেকে চলতি বছরের ৩১ মে পর্যন্ত সময়ে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

৩০ কোটি ৬৭ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুই জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তারা হলেন— মেসার্স শাহেদ শিপ ব্রেকিংয়ের প্রোপাইটর মোহাম্মদ শাহেদ মিয়া ও আরব বাংলাদেশ ব্যাংকের চট্টগ্রামের হালিশহর পোর্ট কানেকটিং শাখার ম্যানেজার মো. নাজিম উদ্দিন। ২০১২ সালের ১১ নভেম্বর থেকে চলতি বছরের ৩১ মে পর্যন্ত সময়ে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

ওএস/এসবি

 

ব্যাংক ও বীমা: আরও পড়ুন

আরও