যা করবো সততার সঙ্গে করবো: অর্থমন্ত্রী

ঢাকা, ১৪ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

যা করবো সততার সঙ্গে করবো: অর্থমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৭:০৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ০২, ২০১৯

যা করবো সততার সঙ্গে করবো: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, যা করবো সততার সাথে করবো। এমনভাবে ব্যাংকের পলিসি করবো, যাতে সবাই উপকৃত হয়। ব্যাংকে শুধুমাত্র দক্ষ ও সৎ কর্মকর্তারা কাজ করবেন।

মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে চতুর্থ প্রজন্মের পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড এর প্রথম বার্ষিক ব্যবসা সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মো.  মোশাররফ  হোসেন ভূঁইয়া, এনডিসি, বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রক কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান পাটোয়ারী, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ এবং পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরাফাত। 

সে সাথে উপস্থিত ছিলেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ এহসান খসরু।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, সরকার ব্যবসার পরিবেশ সৃষ্টিতে নানা সংস্কারমুখী পদক্ষেপ নিয়েছেন। কিন্তু যারা অসাধু ব্যবসায়ী তারা ব্যাংকের টাকা নিয়ে ভুল জায়গায় ব্যবহার করছেন। তারা ব্যাংকের টাকা ফেরত দিচ্ছেন না। তাদের কোনো ছাড় নয়।

তিনি বলেন, অসাধু ব্যবসায়ীদের সহায়তাকারী ব্যাংক কর্মকর্তাদেরও খুঁজে বের করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, গত পাঁচ বছরে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার অন্য যেকোনো দেশের তুলনায় বেশি। পদ্মা ব্যাংক আশা করছি পদ্মা নদীর মতোই এগিয়ে যাবে।

র‌্যাপিড একশন ব্যাটালিয়ান (র‌্যাব) এর মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ বলেন, ঋণ ফেরত না দেওয়ার নিয়তে যারা টাকা নেন এবং টাকা দিবে না এমন জেনেও যারা ব্যাংক থেকে ঋণ দেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার এখনই সময়।

তিনি বলেন, অনেক মানুষ আছে তারা ঋণ নেয় না দেয়ার নিয়ত করে। আর যারা ঋণ দেয় এ কথা জেনে যে এসব ব্যক্তি ঋণশোধ করবে না। তাদেরকেও বিচারের মুখোমুখি করতে হবে।

পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরাফাত বলেন, ‘আমরা নানা প্রতিকূলতার মধ্যে দিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত সব সমস্যা থেকে  বের হতে  পেরেছি। খেলাপি ঋণ আদায়ের পাশাপাশি আমরা নতুন আমানত সংগ্রহ করেছি। আমরা চেষ্টা করছি আমাদের সততা, দক্ষতা আর নিষ্ঠায় যেন  কোনো খাদ না থাকে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে লাইসেন্স পায় পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড। ব্যাংকটির মূল মালিকানায় চারটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক সোনালী, অগ্রণী, জনতা, রূপালী ও ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)। 

দেশব্যাপী ৫৭টি শাখা ও আধুনিক ব্যাংকিং সুবিধা নিয়ে কাজ শুরু করেছে পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড।

এফএ/এএসটি

 

ব্যাংক ও বীমা: আরও পড়ুন

আরও