পাথরের ভেতরে পাওয়া গেল ১১০ কোটি ডলারের সোনা!

ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫

পাথরের ভেতরে পাওয়া গেল ১১০ কোটি ডলারের সোনা!

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:৫৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮

পাথরের ভেতরে পাওয়া গেল ১১০ কোটি ডলারের সোনা!

নিকেলের খনির ভেতর থেকে বিশাল আকৃতির পাথর থেকে বের হয়ে আসলো সোনার খণ্ড। তাও ছোটখাটো কিছু নয়, প্রায় ৯৫ কিলোগ্রাম এবং ৬৩ কিলোগ্রাম ওজনের সোনার খণ্ড। খনিটা নিকেলের হলেও পাথরের ভেতর থেকে বের হয়ে আসলো এসব সোনা।

গত রোববার টরন্টোর সংস্থা রয়্যাল নিকেল কর্পোরেশন (আরএনসি) খনির ভেতর এমন ঘটনার কথা জানান।

তারা জানায়, অন্যদিনের মতোই অস্ট্রেলিয়ার বিটা হান্ট খনিতে ধাতু উত্তোলনের কাজ চলছিল। সেখানেই মিলে এ ‘গোল্ডেন বোল্ডার’।

স্থানীয় সংবাদ সংস্থাগুলোতে এ পাথর খণ্ড দুটিকে স্বর্ণখণ্ড বলে উল্লেখ করা হয়েছে। মজা করে অনেকেই একে বলেছেন গোল্ড রাশ।

আরএনসি জানায়, সোনামিশ্রিত বিশাল আকৃতির পাথরখণ্ড দুটির বড়টির ওজন প্রায় ৯৫ কিলোগ্রাম এবং ছোটটির ওজন প্রায় ৬৩ কিলোগ্রাম। এতে প্রায় ১১০ কোটি ডলারের পাথর রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিকেলের খনিতে সোনা পাওয়ার ঘটনা এটিই নতুন নয়। মূলত অস্ট্রেলিয়ার নিকেল খনিগুলোতে নিয়মিত সোনা পাওয়া যায়। গত জুন মাসেও খনির আরও নিম্নপৃষ্ঠের পাথর থেকে সোনা পাওয়া গিয়েছিল। এ খনি থেকেই প্রতি টন পাথরের মধ্যে ২২০০ গ্রামের মতো সোনা পাওয়া গেছে।

আরএসনসি মুখপাত্র বলছেন, এবারে একসাথে এতবেশি সোনা পাওয়া অভূতপূর্ব ঘটনা।

মজার ব্যাপার হচ্ছে আরএনসি ২০১৬ সালে প্রায় ৮৮ কোটি ডলার দিয়ে নিকেলের খনিটা কিনেছিল। কিন্তু এ দুই সোনার খণ্ডের দামই পুরো খনির দামকেই ছাড়িয়ে গেছে।



তবে অন্যরকম আকৃতির কারণে পাথরগুলো থেকে সোনা বের না করে এগুলোকে বিক্রি না করে সংগ্রহশালায় রেখে দেয়ার প্রতি মত দিয়েছেন ভূবিজ্ঞানীরা।

ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিল বলছেন, এটি হচ্ছে ‘ওয়ান অব দ্য লার্জেস্ট গোল্ড নাগেট’। আরএনসির তরফ থেকেও বলা হয়েছে, সংগ্রাহক বস্তু হিসেবে বড় পাথর খণ্ডটি নিলামেও তোলা হতে পারে।

আরজি/এএসটি