জাপানে লাগিয়ে দেওয়া আগুনে পুড়ে নিহত ৩৩

ঢাকা, ৪ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

জাপানে লাগিয়ে দেওয়া আগুনে পুড়ে নিহত ৩৩

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:১২ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০১৯

জাপানে লাগিয়ে দেওয়া আগুনে পুড়ে নিহত ৩৩

জাপানের প্রখ্যাত কিয়োটো অ্যানিমেশন সংস্থার একটি স্টুডিওতে এক ব্যক্তির দেওয়া আগুনে পুড়ে অন্তত ৩৩ জন নিহত হয়েছে। সেইসঙ্গে আহত হয়েছে ৩৮ জন। যাদের কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। জাপানের পুলিশ জানিয়েছে, এটি নিছক দুর্ঘটনা নয়, নাশকতা।

পুলিশের বরাত দিয়ে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছে, ৪১ বছর বয়সী একটি লোক সকলের নজর এড়িয়ে স্টুডিওর ভিতরে ঢুকে পড়ে। তার পর পেট্রল ছড়িয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। লোকটিকে আটক করেছে পুলিশ। তবে তার পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। তবে লোকটি ওই সংস্থার কেউ ছিল না।

প্রত্যক্ষদর্শীরা তাকে বলতে শুনেছেন, তার কোনো কিছু ‘চুরি’ করেছে ওই সংস্থা। আগুন লাগানোর সময়ও তাকে চিৎকার করে বলতে শোনা গেছে, ‘তোমরা মরো।’ কিন্তু লোকটি কেন এ কাজ করলো, তা স্পষ্ট করে জানায়নি প্রশাসন। নিজের হাত, পা পুড়িয়ে ফেলেছে লোকটি। হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তারও।

কিয়োটো স্টেশনের বেশ কয়েক কিলোমিটার দক্ষিণে অ্যানিমেশন স্টুডিওটি তৈরি হয়েছিল ১৯৮১ সালে। যা ‘কিয়োঅ্যানি’ নামেই বেশি পরিচিত। এটি জাপানের নামজাদা স্টুডিওগুলোর মধ্যে একটি।

আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়েছে, স্টুডিওর চারপাশে বসতি এলাকা। বাসিন্দাদেরই প্রথম চোখে পড়ে আগুন। নিমেষে তা ছড়িয়ে পড়ে চারতলা বাড়িটিতে।

দমকল বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সকাল ১০টা ৩৫ থেকে ফোন আসতে শুরু করে। অনেকেই বলেছিলেন, বিস্ফোরণের আওয়াজ শুনেছেন। দমকলের এক কর্তা জানান, আগুন লাগার সময় বাড়িটিতে অন্তত ৭০ জন কর্মী ছিলেন। এ পর্যন্ত ৩৩ জনের মৃত্যুর খবর মিললেও, সংখ্যাটা আরও বাড়তে পারে। স্টুডিওর ভিতরে যত খোঁজা হয়েছে, ততই নিথর দেহ মিলেছে। বেশির ভাগেরই ধোঁয়ায় শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। আহতদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আরপি

 

এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও