মার্কিন অবরোধ সত্ত্বেও ইরানের তেল আনবে চীন

ঢাকা, ৪ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

মার্কিন অবরোধ সত্ত্বেও ইরানের তেল আনবে চীন

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৯, ২০১৯

মার্কিন অবরোধ সত্ত্বেও ইরানের তেল আনবে চীন

চীন বলেছে, মার্কিন অবরোধ থাকা সত্ত্বেও ইরান থেকে তেল কেনা তারা অব্যাহত রাখবে।

জটিল বাণিজ্যযুদ্ধের অবসানে যুক্তরাষ্ট্র ও চীন বৈঠকে বসার একদিন আগে শুক্রবার এ ঘোষণা দিল চীন।

‘আমরা একতরফাভাবে আরোপিত অবরোধ প্রত্যাখ্যান করছি,’ বলেন চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ফু কং।

২০১৫ সালে ইরান ও বিশ্বের পরাশক্তিগুলোর মধ্যে স্বাক্ষরিত পরমাণু অস্ত্র চুক্তি কার্যকর রাখার লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পক্ষের এক সম্মেলন চলছে ভিয়েনায়। সেখানেই ফু কং এই বক্তব্য দেন বলে জানায় বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এদিকে, ইরান বিষয়ক বিশেষ মার্কিন দূত ব্রায়ান হুক শুক্রবার বলেছেন, ইরানের তেল আমদানি করবে এমন যেকোনো দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে যুক্তরাষ্ট্র। এই অবরোধ থেকে এখন কাউকে অব্যাহতি দেয়া হচ্ছে না।

গত সোমবার আরোপিত এক নতুন নিষেধাজ্ঞায় যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি ও অন্যান্য উচ্চপদস্থ নেতাকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে।

ইরান একটি মারকিন ড্রোন ভূপাতিত করার পর যুক্তরাষ্ট্র এই নজিরবিহীন পদক্ষেপ নেয়।

এশিয়ায় ইরানের অপরিশোধিত তেল বিক্রির বিষয়ে হুক বলেন, ‘আমরা ইরান থেকে যেকোনো তেল আমদানির ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা দেব।’

একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র ইরানের অপরিশোধিত তেল যুক্তরাষ্ট্রের কাছে বিক্রির খবরও তারা খতিয়ে দেখবেন বলে জানান হুক।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, যুক্তরাষ্ট্র গত নভেম্বরে ইরানের ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর তেহরান ব্রাজিল, চীন ও ভারতের কাছে বাজার মূল্যের কম দামে বিভিন্ন পেট্রোকেমিকেল পণ্য বিক্রি করছে।

ইরানের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তি থেকে একতরফাভাবে গত বছর বেরিয়ে যায় যুক্তরাষ্ট্র। এরপর যুক্তরাষ্ট্র ইরানের ওপর নতুন করে অবরোধ আরোপ করে।

ইরানকে পরমাণু কর্মসূচি সীমিত করলে দেশটির ওপর থেকে অবরোধ তুলে নেয়া হবে এই শর্তে চুক্তিটি করা হয়েছিল। যুক্তরাষ্ট্র সেটি ছেড়ে বেরিয়ে গেলেও এতে স্বাক্ষরকারী অন্যান্য দেশগুলো এখন চুক্তি কার্যকর রাখতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এমআর/আইএম

 

এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও